সোনারপুর শুটআউট! পুলিশের জালে মূলচক্রী দীপ, বাকি ৫ অভিযুক্তের খোঁজে জারি তল্লাশি

পুলিশের অনুমান, খুব কাছ থেকে পেটে ও হাতে গুলি করা হয়েছে তাঁকে। রাত ২টো ১৫ মিনিটে এই ঘটনা ঘটে। পরে বন্ধুরা ঘর থেকে তাঁকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। স্থানীয় এবং পুলিশ সূত্রে খবর, শুক্রবার রাতে কামরাবাদ রেল স্টেশনের কাছে এক বন্ধুর বাড়িতে ছিলেন লাল্টু হাজরা। সেখানেই তাঁকে গুলি করে খু*ন করা হয়।

সোনারপুরে (Sonarpur) যুবক খু*নে অবশেষে গ্রেফতার (Arrest) মূলচক্রী (Main Accused)। পুলিশ সূত্রে খবর বাকিদের খোঁজে জারি রয়েছে তল্লাশি (Search Operation)। ধৃত দুষ্কৃতীর নাম দীপ হালদার। রবিবার সকালে তাকে গ্রেফতার (Arrests) করে সোনারপুর থানার পুলিশ (Sonarpur Police Station)। ২৭ বছর বয়সী ওই যুবক দক্ষিণ ২৪ পরগনার রাজপুর-সোনারপুর পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। শুক্রবার রাতে কামরাবাদ এলাকা থেকে উদ্ধার হয় এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ওই যুবকের পেটে ও হাতে গু*লি লাগে। এমনকী ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে গুলির খোলও।

পুলিশের অনুমান, খুব কাছ থেকে পেটে ও হাতে গুলি করা হয়েছে তাঁকে। রাত ২টো ১৫ মিনিটে এই ঘটনা ঘটে। পরে বন্ধুরা ঘর থেকে তাঁকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। স্থানীয় এবং পুলিশ সূত্রে খবর, শুক্রবার রাতে কামরাবাদ রেল স্টেশনের কাছে এক বন্ধুর বাড়িতে ছিলেন লাল্টু হাজরা। সেখানেই তাঁকে গুলি করে খু*ন করা হয়। সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ জানতে পারে, খুনের সময় মোট ৫ যুবক ঘরের মধ্যে ঢুকেছিলেন। তাঁদের মধ্যে একজন গুলি চালায়। তবে মূলচক্রী দীপ ঘটনাস্থলে ছিলেন না। তিনি শুধু খুনের পরিকল্পনা করেছিলেন। দীপের নির্দেশে ৫ জন এসেছিল এই খু*ন করতে।

শনিবার সকালে লাল্টুর দেহ উদ্ধার হয় রাজপুর-সোনারপুর পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কামরাবাদ রেল গেটের কাছে একটি বাড়ি থেকে। পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত লাল্টুর দেহ যে বাড়িতে পাওয়া গিয়েছে তা ময়ূখ ভট্টাচার্য নামে এক যুবকের। ময়ূখ লাল্টুর বন্ধু। পুলিশ সূত্রে আরও খবর, শুক্রবার রাতে টার্গেট ছিল লাল্টু হাজরার বন্ধু বিশ্বজিৎ সরকার। বিশ্বজিৎকে না পেয়ে লাল্টুকে গুলি করে খুন, এমনটাই অভিযোগ পুলিশের। শুক্রবার পাঁচজন মিলে বিশ্বজিতের বাড়িতে হামলা চালায়। তবে বিশ্বজিৎকে বাড়িতে না পেয়ে লাল্টুকে গুলি করে খুন করা হয় বলে অভিযোগ। এরপরই সেখান থেকে চম্পট দেন ৫ যুবক। তারপর গু*লি চালানোর ঘটনা ফোন করে তাঁরা দীপকে জানিয়েছিলেন পুলিশ সূত্রে খবর।

এদিকে লাল্টু খু*নের তদন্তে নেমে দীপের মোবাইলের কল লিস্ট খতিয়ে দেখে একাধিক চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে পুলিশ। এরপর দীপকে পাকড়াও করে ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদ (Interrogation) চালাচ্ছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

Previous articleকিউয়িদের ৬৫ রানে হারাল ভারতীয় দল