বাজপাখি কোর্তোয়া, ভাল খেলেও বেলজিয়ামের কাছে ১-০ গোলে হারল কানাডা

আক্রমণাত্মক ফুটবলের দ্যুতি ছড়িয়ে শুরু থেকে কানাডা চাপে রাখে গতবারের সেমিফাইনালিস্টদের।

শুধু একজন ফিনিশার ছিল না বলেই বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম জয়টা পাওয়া হলো না কানাডার। আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়ামে বেলজিয়ামকে দারুণভাবে চেপে ধরেছিল উত্তর আমেরিকার দেশটি। আক্রমণাত্মক ফুটবলের দ্যুতি ছড়িয়ে শুরু থেকে কানাডা চাপে রাখে গতবারের সেমিফাইনালিস্টদের।

তবে একের পর এক সুযোগ তৈরি করেও ফিনিশিংয়ের ব্যর্থতায় গোল পাওয়া হয়নি কানাডার। এমনকি পেনাল্টি থেকে গোল করার সুযোগ পেয়েও লক্ষ্যভেদ করতে পারেনি তারা। উল্টো পেনাল্টি ঠেকিয়ে নায়ক হয়েছেন বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া। আর ম্যাচজুড়ে চাপে থাকা বেলজিয়ামকে কাঙ্ক্ষিত গোলটি এনে দেন মিচি বাতশুয়াই।

এক আক্রমণে ম্যাচের ৯ মিনিটে পেনাল্টি আদায় করে ছাড়ে লা রুজ খ্যাত দলটি।
ডি-বক্সের ভেতর হাতে বল লাগিয়ে কানাডাকে পেনাল্টি উপহার দেন ইয়ানিক কারাসকো। তবে চমক অপেক্ষা করছিল আরও। আলফোনসো ডেভিসের নেওয়া পেনাল্টি বাজপাখির দক্ষতায় ঝাঁপিয়ে পড়ে ঠেকান বেলজিয়ান গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া।প্রথম ১৮ মিনিটে কানাডার ৭টি শটের বিপরীতে বেলজিয়ামের শট ছিল মাত্র ১টি। শুধু নিজেদের ভুলেই এগিয়ে ‍যাওয়া হয়নি কানাডার।

ম্যাচের ২৪ মিনিটে এদেন হ্যাজার্ডের নৈপুণ্যে দারুণ একটি সুযোগ পেয়েছিল বেলজিয়াম। তবে কানাডিয়ান গোলরক্ষকের কৃতিত্বে জালের দেখা পায়নি বেলজিয়ামের সোনালি প্রজন্মের দলটি। আক্রমণের গতি কমলেও পুরোপুরি ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ হারায়নি কানাডা।

একটু পর পর আক্রমণের ঝড়ে প্রতিপক্ষের ডিফেন্সে হানা দিচ্ছিল তারা। তবে কখনো কখনো নিজেদের ব্যর্থতা আবার কখনো বেলজিয়াম গোলরক্ষক কোর্তোয়ার দক্ষতায় গোল পাওয়া হচ্ছিল না।পিছিয়ে পড়েও হাল না ছেড়ে কানাডা দারুণ সব আক্রমণ চালিয়ে যায়। তবে ফিনিশিংয়ের অভাবে কাঙ্ক্ষিত গোলটি না পেয়েই হতাশা নিয়ে বিরতিতে যায় তারা।

বিরতি থেকে ফিরেও শুরুতে আক্রমণে এগিয়ে ছিল কানাডা। বেলজিয়াম ডিফেন্সে চাপ তৈরি করে গোলের সুযোগও তৈরি করছিল তারা। তবে ফিনিশিংয়ের কোনো উত্তরই যেন মিলছিল না। তাই হচ্ছিল না গোলের সমাধানও। এ সময় খেলায় কিছুটা সমতায় আসে। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে দু পক্ষ একাধিকবার গোলের কাছাকাছি গিয়েছিল তবে মেলেনি জালের দেখা।

তবে ৮০ মিনিটের মাথায় আবারও বাজপাখির মতো ঝাঁপিয়ে কানাডার গোলের সুযোগ নষ্ট করেন কোর্তোয়া। এরপর বেলজিয়ামও অবশ্য ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল, তবে সেগুলোও কাজে আসেনি। শেষ পর্যন্ত এক গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে বেলজিয়াম।

 

Previous articleস্পেনের ৯৯৪ পাসে ৭-০ গোলে কোস্টারিকার অসহায় আত্মসমর্পণ