চাকরির নামে ২২ লক্ষ টাকা ঘুষ নিয়েছেন শুভেন্দু ! দলীয় মুখপত্রে দাবি তৃণমূলের

ওই তিন চাকরি প্রার্থীর দাবি, তাঁদের সামনেই নাকি টাকা দেওয়া হয় শুভেন্দুকে। এই অভিযোগ আদালতে হলফনামা দিয়েও তিন প্রার্থী জানিয়েছেন বলে জাগো বাংলার প্রতিবেদনে প্রকাশ হয়েছে

নিয়োগ দুর্নীতিতে এবার শাসক দলের নিশানায় বিরোধী দলনেতা। চাকরি দেওয়ার নামে শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) ২২ লক্ষ টাকা ঘুষ খেয়েছে বলে অভিযোগ তৃণমূলের। আজ, শুক্রবার তৃণমূলের (TMC) মুখপত্র জাগো বাংলায় (Jago Bangla) প্রকাশিত প্রথম পাতার নিউজে দাবি করা হয়েছে, ২০১৪ সালের তিন টেট (TET) পরীক্ষার্থীর থেকে ২২ লক্ষেরও বেশি টাকা শুভেন্দু অধিকারী তুলেছেন। চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার নামে এই বিপুল পরিমাণ টাকা ঘনিষ্ঠ সন্টু গঙ্গোপাধ্যায় ওই তিন পরীক্ষার্থীর থেকে নিয়েছিল।

ওই তিন চাকরি প্রার্থীর দাবি, তাঁদের সামনেই নাকি টাকা দেওয়া হয় শুভেন্দুকে। এই অভিযোগ আদালতে হলফনামা দিয়েও তিন প্রার্থী জানিয়েছেন বলে জাগো বাংলার প্রতিবেদনে প্রকাশ হয়েছে।

তৃণমূল নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার (Jayprakash Majumder) বলেন, “এর আগে একজন বাঙালি, প্রাক্তন সিবিআই অফিসার, যিনি বিধায়ক হয়েছিলেন, তিনি প্রকাশ্যে দাবি করেছিলেন যে, বনগাঁ এলাকার একজনকে চেনেন যিনি চাকরি দেন। হাইকোর্টেও বিষয়টি উত্থাপন হয়। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় (Abhijit Ganguly) তখন জিজ্ঞাসা করেছিলেন, কার কথা বলছেন বলুন। আমি ব্যবস্থা নেব। যদি সেই ঘটনা হয় সেখানে কেউ এফিডেভিট করেনি। আজকে যে ঘটনা বলা হচ্ছে, ক্ষতিগ্রস্থ তিনজন এফিডেভিট করেছেন। কোর্টে গিয়ে বলেছেন কারা-কারা টাকা নিয়েছেন। ঘটনাটা শুভেন্দু অধিকারী বলে নয়। এটা সুস্পষ্ট অভিযোগ। তাই অবিলম্বে তদন্ত হওয়া উচিত।”

 

Previous articleভারতে কী বৈধ সমলি*ঙ্গের বিয়ে? কেন্দ্রের কাছে জবাব তলব সুপ্রিম কোর্টের