সাধারণতন্ত্র দিবস থেকে মাতৃভাষাতে পড়া যাবে সুপ্রিম রায়-নির্দেশিকা, তালিকায় নেই বাংলা

মাতৃভাষাতেই সুপ্রিম কোর্টের (Supreme Court) রায় এবং নির্দেশিকা পড়া যাবে। এই ঐতিহাসিক ব্যবস্থা চালু হচ্ছে ২৬ জানুয়ারি সাধারণতন্ত্র দিবস থেকেই। তবে, তালিকায় নেই বাংলা (Bengali)। বুধবার, একথা বলেন দেশের প্রধান বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় (DY Chandrachur)। এখনও পর্যন্ত সমস্ত রায়ই ইংরেজিতে লেখা থাকে। এরফলে বহু ভাষাভাষীর দেশ ভারতে মানুষকেই সমস্যায় পড়তে হচ্ছে বলে মত সুপ্রিম কোর্টের। সেই কারণে সংবিধানে তফসিলভুক্ত সব আঞ্চলিক ভাষায় রায় প্রকাশের জন্য একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয় শীর্ষ আদালত। সেই কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এবছর ২ জানুয়ারি ‘ই-এসসিআর’ নামক এক উদ্যোগের সূচনা হয়। এই ব্যবস্থায় অনলাইনেই (Online) সুপ্রিম কোর্টের যে কোনও রায় পড়া যাবে। বিচারপতি এএস ওকার নেতৃত্বে গঠিত ৬ সদস্যের এই কমিটিই অনুবাদের বিষয়টি দেখবে।

সুপ্রিম কোর্টের অনলাইন পোর্টালে (Portal) এখনও পর্যন্ত ৩৪ হাজার মামলা রাখা হয়েছে। তার মধ্যে আপাতত ১০৯১টি মামলা আঞ্চলিক ভাষায় অনুবাদ করা হচ্ছে। তবে, সেই তালিকায় আপাতত নেই বাংলা। হিন্দি, তামিল, গুজরাতি এবং ওড়িয়া ভাষাতেই রায় পড়া যাবে। প্রধান বিচারপতি জানান, খুব শীঘ্রই অন্য আঞ্চলিক ভাষাতেও একই সুবিধা মিলবে। প্রধান বিচারপতি চন্দ্রচূড় জানান, ওড়িয়ায় ২১টি, মরাঠা ভাষায় ১৪টি, অহমিয়া ভাষায় ৪টি, গারো ভাষায় ১টি, কন্নড় ভাষায় ১৭টি, মালয়ালম ভাষায় ২৯টি রায় অনুবাদ করা হয়েছে। খুব শীঘ্রই, বাকি ভাষাগুলিও এই অনুবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।

Previous articleতাপস-কুন্তলকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা, ইডি-র তদন্তকারীদের সামনেই ব্যাপক বচসা, কথা কাটাকাটি