প্রতারণার অভিযোগে কাঠগড়ায় পঞ্চায়েত প্রধান

চাকরি দেওয়ার নাম করে ভুয়ো নিয়োগপত্র দিয়ে 40 লক্ষ টাকা কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ উঠল কোচবিহার 2 নম্বর ব্লকের মধুপুর গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান যোগেশ বর্মনের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, চাকরি দেওয়ার নাম করে এলাকার পাঁচ যুবকের থেকে তিনি 40 লক্ষ টাকা নেন। শুধু তাই নয়, তাঁদের হাতে ভুয়ো নিয়োগপত্র তুলে দিয়েছেন বলেও অভিযোগ। সোমবার সকালে কোচবিহার 2 নম্বর ব্লকের বিজেপি কর্মীরা একযোগে পুন্ডিবাড়ি থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান। এলাকার পাঁচ যুবক চঞ্চল রায়, টগেন রায়, বিশাল রায়, শেখর রায় ও অমল রায়ের থেকে প্রধান টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ। ওয়েস্ট বেঙ্গল হেলথ রিক্রুটমেন্ট বোর্ডের ভুয়ো নিয়োগপত্রও দেওয়া হয়েছে তাঁদের।

যদিও তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে প্রধান যোগেশ বর্মন বলেন, যাঁদের চাকরি দেওয়ার কথা বলা হচ্ছে তাঁদের তিনি চেনেন না। আর কোনোরকম টাকা লেনদেন হয়নি। পাল্টা বাড়িতে দুষ্কৃতী হামলার অভিযোগে পুন্ডিবাড়ি থানায় ডায়েরি করেছেন প্রধান।