মদের দামে বিশেষ ‘করোনা-সেস’ বসাতে উদ্যোগী একাধিক রাজ্য

করোনার দাপটে আর্থিকভাবেও বিপর্যস্ত হয়েছে দেশের রাজ্যগুলি৷

বেহাল অর্থনীতিকে কিছুটা হলেও চাঙ্গা করতে রাজ্যগুলি বিকল্প পথ খুঁজে চলেছে৷

এমনই এক বিকল্প ভাবনা, মদের দামে বিশেষ সেস বসিয়ে আয় বাড়ানো৷ দেশের একাধিক রাজ্য এই পথে হাঁটতে চলেছে৷ দিল্লি, অন্ধ্রপ্রদেশ, রাজস্থান ইতিমধ্যেই ৩০ থেকে ৭০ শতাংশ অতিরিক্ত সেস বসিয়ে মদের দাম এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে। দিল্লিতে পেট্রল ও ডিজেলের উপরও কর বাড়ানো হয়েছে। নতুন এই কর বসানোর ফলে দিল্লিতে ডিজেলের দাম ৭ টাকা এবং পেট্রলের দাম দেড় টাকা বাড়তে চলেছে৷ জিএসটি প্রক্রিয়ার পর মদ, পেট্রোপণ্য থেকে সংগৃহীত কর থেকে রাজ্যের সিংহভাগ রাজস্ব আসে৷ তাই লকডাউনের মধ্যেই মদের দোকান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তে কোনও সরকারই আপত্তি করেনি৷ একমাত্র চেন্নাই শহরে মদ বিক্রি চালু করেও ভিড়ের ঠেলায় ফের বন্ধ করা হয়েছে৷ কেজরিওয়ালের পথ অনুসরন করে একাধিক রাজ্য মদ ও পেট্রোপণ্যের উপর অতিরিক্ত কর বা সেস চাপাতে চাইছে৷

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই দিল্লিতে মদের দামের উপর ৭০% নতুন কর চাপিয়েছে কেজরি সরকার৷ অন্ধ্রপ্রদেশ বাড়িয়েছে ৫০ %, রাজস্থান চাপিয়েছে ৩০ %। মদের উপর কর বসিয়ে রাজস্ব সংগ্রহের তালিকার শীর্ষে আছে উত্তরপ্রদেশ। গত আর্থিক বছরে উত্তরপ্রদেশ এই খাতে ১ লক্ষ ৭৫ হাজার কোটি টাকা আয় করেছে। সেই তুলনায় পশ্চিমবঙ্গ অবশ্য অনেক কম, আয়ের পরিমাণ ১১ হাজার ৮৭৩ কোটি টাকা।