বিমানসংস্থার সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন, চাকরি গেল পাইলটের !

তাঁর ‘দোষ’, তিনি সংস্থার এমন অনেক কিছু তথ্য শেয়ার করেছেন, যা অস্বস্তিতে ফেলেছে এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়াকে ৷ আর তাতেই চাকরি গেল সংস্থার ক্যাপ্টেন পাইলটের। তাঁকে বরখাস্ত করল এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়া ৷ তিনি একটি ভিডিও বার্তায় সব কিছু জানিয়েছেন। তাঁর ভিডিও দেখার পর ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল অ্যাভিয়েশন (DGCA)-এর তরফেও বিমানের সুরক্ষা নির্দেশিকা সংক্রান্ত বিষয়ে এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়ার হেড অফ অপারেশনস মণিশ উপ্পলের কাছে চিঠি পাঠানো হয় ৷

বরখাস্ত হওয়া পাইলটের অভিযোগ, দিনের পর দিন ডিউটিতে থাকাকালীন এমন অনেক কিছুই তাঁর নজরে এসেছে । যা তাঁর ঠিক বলে মনে হয়নি ৷ কারণ এতে যাত্রী এবং বিমানের অন্যান্য কর্মীদের সুরক্ষার বিষয়ে প্রশ্নচিহ্ন তুলছে ৷ গৌরবের আরও মারাত্মক অভিযোগ, যে ফুয়েল বা জ্বালানি বাঁচানোর জন্য পাইলটদের রীতিমতো ‘টার্গেট’ বেঁধে দেয় এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়া ৷ সাধারণত এয়ারবাসের ল্যান্ডিংয়ের জন্য ‘ফ্ল্যাপ-৩’ এবং ‘ফ্ল্যাপ-৪’ এই দু’ধরণের ল্যান্ডিং পদ্ধতি হয় ৷ ফ্ল্যাপ-৪ ল্যান্ডিং মোড অনেক বেশি সুরক্ষিত ল্যান্ডিং ৷ কিন্তু এতে জ্বালানির খরচ বেশি হয় ৷ কিন্তু কঠিন বিমানবন্দরের রানওয়ে গুলিতে ল্যান্ড করার জন্য ফ্ল্যাপ-৪ ল্যান্ডিং অনেক বেশি সুরক্ষিত ৷ কিন্তু এয়ার এশিয়া ইন্ডিয়া পাইলটদের অনেক বেশি সংখ্যায় ফ্ল্যাপ-৩ ল্যান্ডিংয়ের উপরই জোর দিতে বলা হয়, যাতে জ্বালানি অধিক মাত্রায় সেভ করা সম্ভব হয় ৷ এই বিষয়টি দিনের পর দিন দেখার পর সত্যটা সবার সামনে আনতে বাধ্য হন পাইলট গৌরব তানেজা আর তার ফল তাঁকে বরখাস্ত করা হয়৷