ফের পথ দেখালো কেরল, মহামারি রুখতে আগামী ১ বছরের জন্য কড়া পদক্ষেপ

ফের পথ দেখাচ্ছে কেরল৷

গোষ্ঠী সংক্রমণ রুখতে আগামী এক বছরের জন্য
বাধ্যতামূলক গাইডলাইন প্রকাশ করলো কেরল সরকার৷ এই গাইডলাইন অমান্য করলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের কথা বলা হয়েছে৷ রাজ্যে গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হতে পারে, এমন আশঙ্কা থেকেই এভাবে কড়া পদক্ষেপ করল কেরল সরকার৷ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে জারি করা এই নতুন গাইডলাইন বহাল থাকবে আগামী ১ বছর অথবা পরবর্তী নির্দেশিকা জারি না হওয়া পর্যন্ত৷ Epedemic Disease Act সংশোধন করে এই গাইডলাইন নির্দিষ্ট করা হয়েছে৷

নতুন নির্দেশিকা অনুযায়ী-

🔺 পাবলিক প্লেসে, কর্মস্থলে, যানবাহনের মধ্যে এবং মানুষ সমবেত হয় এমন জায়গায় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক৷

🔺 বনধ, ধরনা, প্রতিবাদ মিছিল এবং বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে হলে সরকারের থেকে আগাম অনুমোদন নিতে হবে৷

🔺 অনুমোদন পেলেও ১০ জনের বেশি এ ধরনের কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারবেন না৷

🔺 সরকারি অনুমতি ছাড়া এ ধরনের যে কোনও কর্মসূচি ‘বেআইনি’৷

🔺 রাস্তা, ফুটপাতে বা প্রকাশ্য স্থানে থুতু ফেলা যাবে না৷

🔺 প্রকাশ্য স্থানে এবং কোনও অনুষ্ঠানে সবসময় ৬ ফুটের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে৷

🔺 যে কোনও দোকান বা ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে একসঙ্গে ২৫ জনের বেশি থাকতে পারবেন না৷

🔺 দোকানে গ্রাহকদের প্রবেশের আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে৷

🔺 বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি জড়ো হতে পারবে না৷

🔺 শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের ক্ষেত্রে ২০ জনের বেশি জড়ো হওয়া যাবে না৷

🔺 দু’ক্ষেত্রেই প্রত্যেককে মাস্ক পরতে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে৷

এই নির্দেশগুলি আগামী ১ বছর অথবা পরবর্তী নির্দেশিকা জারি না হওয়া পর্যন্ত কার্যকর থাকবে৷