চিকিৎসায় সামান্য  সাড়া, বাইপ্যাপ সাপোর্ট খোলা হলেও বিপন্মুক্ত নন সৌমিত্র

চিকিৎসায় সামান্য সাড়া দিচ্ছেন সৌমিত্র  চট্টোপাধ্যায়, খুলে নেওয়া হয়েছে বাইপ্যাপ সাপোর্ট। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, এখনও প্রবীণ অভিনেতা বিপন্মুক্ত সেকথা বলা যাবে না। বরং আপাতত স্থিতিশীল সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার  সন্ধেয় হাসপাতাল সূত্রে  বলা হয়েছে, তাঁরএখনও হালকা জ্বর রয়েছে। ওষুধের মাধ্যমে মূত্রনালীর সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে । ফুসফুসের সংক্রমণ-ও আপাতত কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনা গিয়েছে। তবে তাঁর শারীরিক অস্থিরতা এখনও রয়েছে ।
আগামীকাল বুধবার সকালে ফের ইকো, ইসিজি, এমআরআই ও রক্ত পরীক্ষা করা হবে। সেই সঙ্গে হবে ফের করোনা পরীক্ষা । এরপরই বেলা ১টার সময়  অভিনেতার সিএসএফ, এমআরআই রিপোর্ট নিয়ে বিশ্লেষণ করবেন ১৫ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড ।

হাসপাতালের চিকিৎসকরা আরও জানিয়েছেন, মঙ্গলবার তাঁর এমআরআই রিপোর্টে কোনও অস্বাভাবিকতা পাওয়া যায়নি। বুধবারের রিপোর্টও ভালো হবে বলে আশা করছেন চিকিৎসকরা।

যদিও  মঙ্গলবার দুপুরে জানানো হয়েছিল যে, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এখনও সঙ্কটজনক। তাই তাঁকে ইনভেসিভ ভেন্টিলেশনে দেওয়ার চিন্তাভাবনা করছেন চিকিৎসকরা । প্রবীণ অভিনেতার শরীরে কোমর্বিডিটি থাকায় চিকিৎসায় সাড়া দিতে সময় নিচ্ছেন । কারণ,  অভিনেতার বয়স ৮৫ বছর। বার্ধক্যজনিত সমস্যায় তিনি অনেকদিন থেকেই ভুগছেন।

হাসপাতাল থেকে মঙ্গলবার  সন্ধেয় আরও  জানানো হয়, শরীরে সোডিয়াম-পটাশিয়ামের মাত্রা এখনও স্বাভাবিক নয় অভিনেতার। তাঁর স্নায়ু সংক্রান্ত সমস্যাও একই রকম রয়েছে। এখনও কাটেনি আচ্ছন্নতা। তবু কিছু কিছু ওষুধে কাজ হচ্ছে । অশীতিপর অভিনেতা যেভাবে  জীবনযুদ্ধে লড়াই করছেন, তাতে এখনই হাল ছাড়তে রাজি নন চিকিৎসকরা।