ত্রিপুরায় বিপ্লবকে বার্তা দিতে দেওধরকে সরালো বিজেপি

ত্রিপুরায় পালাবদলের অন্যতম কারিগর তথা রাজ্যের পর্যবেক্ষক সুনীল দেওধরকে ত্রিপুরার দায়িত্ব থেকে সরাল কেন্দ্রীয় বিজেপি। পরিবর্তে তাঁকে অন্ধ্রপ্রদেশে দলের সহ পর্যবেক্ষক করে পাঠানো হয়েছে। এই রদবদলকে দিল্লির তরফে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের পাশে থাকার বার্তা বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ।

প্রসঙ্গত, ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের বিরুদ্ধে সরকার ও দলের অভ্যন্তরেই ব্যাপক ক্ষোভ-বিক্ষোভ পুঞ্জিভূত হয়। তাঁর উল্টোপাল্টা নানা মন্তব্যে দলকে বারবার জনমানসে হাস্যাষ্পদ হতে হয়েছে। পাশাপাশি তাঁর বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারী মনোভাবের অভিযোগ ছিল বিস্তর। সম্প্রতি কংগ্রেস ও তৃণমূল হয়ে বিজেপিতে আসা বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মনের নেতৃত্বে প্রায় ১৮ জন বিধায়ক মুখ্যমন্ত্রী বদলের দাবিতে দিল্লি যান। বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডার কাছে তাঁরা দাবিও জানান।ত্রিপুরা রাজ্য রাজনীতি সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রী বদলের এই দাবিতে মদত দিয়েছিলেন সুনীল দেওধর। তাঁর এই ভূমিকা দিল্লির নেতারা ভাল চোখে দেখেননি। মুখ্যমন্ত্রী বদল হলে বিজেপি সম্পর্কে ভুল বার্তা ছড়িয়ে পড়তে পারে আশঙ্কা ছিল নাড্ডাদের। তাই দেওধরকে রাজ্য থেকে সরিয়ে একদিকে দলের বিদ্রোহী শিবিরকে সমঝে চলার বার্তা দেওয়া হল তেমনি অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে পাশে থাকার বার্তা দিল বিজেপি।

আরও পড়ুন-সীমান্তে পরীক্ষা চাইলে উপযুক্ত জবাব পাবে, সেনাদের সঙ্গে দেওয়ালি কাটিয়ে হঁশিয়ারি মোদির