মঞ্চে উঠেও গেরুয়া শিবিরে যোগ দিলেন না তৃণমূলত্যাগী কৃষ্ণেন্দু

সকালেই তৃণমূল (TMC) দলের বিরুদ্ধে ও সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় (Kalyan Benarjee) বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে দল ছেড়েছিলেন। একবার ডানকুনি (Dancuni) পুরসভার তৃণমূলের হয়ে ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে জয়ী প্রার্থী কৃষ্ণেন্দু মিত্র (Krisnendu Mitra)। নির্দল হয়ে জিতে সমর্থন করেছিলেন তৃণমূলকে। ডানকুনিতে বরাবর স্থানীয়দের কাছের মানুষ বলে পরিচিত কৃষ্ণেন্দু মিত্র। তৃণমূল ছেড়ে কয়েকশো মানুষকে নিয়ে ডানকুনিতে বিজেপির দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) সভায় যোগ দিতে গিয়েও অপমানিত হয়ে বিজেপি (BJP) দলে যোগদান করলেন না তিনি। যোগদান না করার কারণ হিসেবে জানান তিনি আত্মসম্মান জলাঞ্জলি দিয়ে কোনও দল করতে পারবেন না।

কৃষ্ণেন্দু মিত্র আরও জানান, তার এদিন যোগ দেওয়ার আগে তিনি কেন যোগ দিচ্ছেন সেই বিষয়ে মঞ্চে বক্তব্য রাখার কথা ছিল। কিন্তু বিজেপি সেই কথা না রেখে তাঁকে শুধু যোগদান করাতে চেয়েছিল। তাই আত্মসম্মান বিক্রি করে তিনি আর বিজেপি দলে যোগ দিতে পারবেন না। আগামী দিনে আর কোনো রাজনীতি করবেন না বলেও জানিয়ে দেন। তবে রাজ্যে হয়তো এই প্রথম এমন বিরল ঘটনা ঘটল যে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে বিজেপি দলে যোগ দিতে গিয়েও অপমানিত হয়ে যোগ না দিয়ে ফিরে গেলেন ডানকুনির হেভিওয়েট নেতা কৃষ্ণেন্দু মিত্র। বিজেপি সূত্রে খবর, এরপরে দিলীপ ঘোষ কৃষ্ণেন্দুর সঙ্গে কথা বললেও চিঁড়ে ভেজেনি।

আরও পড়ুন:নন্দীগ্রামে মুখোমুখি ‘মা’-‘কুপুত্র’! জল্পনা রাজ্য রাজনীতিতে