বৃষ্টি মাথায় আরামবাগের রোড-শোতেও জনস্রোত: ‘গদ্দার’দের তীব্র কটাক্ষ কুণালের 

সকাল থেকেই মুখ ভার হুগলির আকাশের। তার মধ্যেই দুটো রোড-শো ‘দিদির দূত’-এর। উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। দুটি রোড-শোতেই জনজোয়ার। আরামবাগের (Arambag) ব়্যালি ছিল বিকেল চারটে নাগাদ। তখন রীতিমতো বৃষ্টি পড়ছে। কিন্তু জনসমাগম দেখে তা মালুম করার কোন উপায় নেই। তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে স্বতঃস্ফূর্তভাবে যোগ দিয়েছিলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। বহুতলের বারান্দা এবং ছাদও ছিল ভর্তি।

এরপরে আরামবাগের জনসভা করেন কুনাল ঘোষ। উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংসদ অপরূপা পোদ্দার (Aparupa Poddar), বিধায়ক-সহ জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। সভা থেকে দলবদলুদের বিরুদ্ধে তীব্র কটাক্ষ করেন তৃণমূল (Tmc) মুখপাত্র। তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Bandopadhyay) যাঁদের পরিচয় দিলেন। মন্ত্রিত্ব-সহ সব সুবিধা নেওয়ার পরে, এজেন্সির ভয়ে তাঁরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছে। এটা মাকে পিছন থেকে ছুরি মারার সমান বলে মন্তব্য কুণাল ঘোষের। তিনি বলেন, শুভেন্দু অধিকারী (Shubhendu Adhikari), রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় (Rajiv Banerjee), বৈশালী ডালমিয়ার (Boishali Dalmia) মতো দলবদলুরা যেখান থেকে দাঁড়াবেন, সেখান থেকেই জামানত জব্দ হবেন। তিনি বলেন, পুরো সময় মন্ত্রিত্ব উপভোগ করার পর ভোটের আগে কেন তাঁদের মনে হল যে এই দলে আর থাকা যাচ্ছে না! মঞ্চে তৃণমূল থেকে বিজেপিতে (Bjp) যাওয়া নেতা-নেত্রীদের নাম উচ্চারণ হতেই জনসভা থেকে আওয়াজ ওঠে “গদ্দার”।

কুণাল ঘোষ অভিযোগ করেন, ধর্মের নামে রাজনীতি করছে বিজেপি। অথচ প্রতিদিনই পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধি হচ্ছে। ফলে সব জিনিসের দাম আকাশ ছোঁয়া। বিজেপির “জয় শ্রীরাম” স্লোগানকে কটাক্ষ করে তৃণমূল মুখপাত্র বলেন, “জয় শ্রীরাম বললে কী পেট্রোল পাম্পে কম দামে জ্বালানি পাওয়া যায়? কেন্দ্রীয় সরকার প্রকল্পের নামে মানুষকে ভাঁওতা দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন কুণাল। তিনি বলেন, রাম নিয়ে বিজেপি মাতামাতি করলেও সীতার বিষয়ে তাদের কোনও শ্রদ্ধা নেই। গর্ভবতী সীতাকে বনবাস যেতে হয়েছিল। চরম লাঞ্ছনা-অপমানে পাতাল প্রবেশ করতে হয়েছিল। বিজেপি নারীদের সম্মান করে না বলে অভিযোগ করেন কুণাল। বিজেপি চাল সংগ্রহ কর্মসূচিকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “মা-বোনেরা সাবধান! সীতাহরণ করতে সাধুবেশে দরজায় ভিক্ষা চাইতে এসেছিল রাবণ”। বিজেপির বিরুদ্ধে দলীয় কর্মীদের একজোট হয়ে লড়াইয়ের আহ্বান জানান কুণাল ঘোষ।

Advt