DYFI কর্মী মইদুল JMB জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন! বিজেপি কর্মীর পোস্ট ঘিরে বিতর্কের ঝড়

DYFI কর্মী মইদুল মিদ্দা জেএমবি জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন! বিজেপির আইটি সেলের এক কর্মীর এই পোস্ট ঘিরে শুরু হয়েছে তুমুল বিতর্ক। এই ঘটনার বিচার চেয়ে সাইবার ক্রাইমের দ্বারস্থ হয়েছেন ডিওয়াইএফআই-এর জেলা কমিটি। তারা বিজেপির আইটি সেলের ওই কর্মীর গ্রেফতারির দাবি জানিয়েছে।

চাকরি, শিক্ষা-সহ একাধিক দাবিতে ১১ ফেব্রুয়ারি নবান্ন অভিযানের ডাক দিয়েছিল বাম ছাত্র সংগঠন। বামেদের অভিযানকে কেন্দ্র করে রীতিমতো উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল কলকাতা। পুলিশের লাঠি, জলকামানের আঘাতে প্রায় ৪০ জন অসুস্থ হয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যেই ছিলেন বাঁকুড়ার মইদুল ইসলাম মিদ্দা। মিদ্দার লড়াই শেষ হয় ১৫ ফেব্রুয়ারি। এরপরই বিক্ষোভের আঁচ শহর ছেড়ে পার্শ্ববর্তী জেলাতেও ছড়িয়ে পড়ে। এরই মধ্যে নবান্ন অভিযানে নিহত DYFI কর্মী মইদুল ইসলাম মিদ্দা JMB জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত! এই মর্মে বিজেপির আইটি সেলের কর্মী দিবাকর দেবনাথ সোশাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে। যেখানে লেখা, “মইদুল ইসলাম ২০১৪ থেকে বাংলা দেশের JMB জঙ্গি সংগঠনের সাথে যুক্ত ছিল। এনআইএ তাই বলছে। যা হয়েছে ভালো হয়েছে।” এই পোস্ট নিয়ে ইতিমধ্যে তুমুল বিতর্ক আলিপুরদুয়ারের রাজনীতির অন্দরে।

আরও পড়ুন-‘বিরোধীশূন্য’ মন্তব্য নিয়ে বিজেপির তোপ, পালটা তৃণমূলের কংগ্রেসমুক্ত ভারত প্রসঙ্গ

ইতিমধ্যেই মইদুলের স্ত্রীকে হোম গার্ডের চাকরি দিয়ে পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। কিন্তু তারপরই আলিপুরদুয়ারের কামাখ্যাগুড়ির বিজেপির আইটি সেলের কর্মী দিবাকর দেবনাথ সোশ্যাল মিডিয়ায় মৃত ওই কর্মী সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করে পোস্ট করেন। এই ঘটনার বিচার চেয়ে সাইবার ক্রাইমের দ্বারস্থ হয়েছে ডিওয়াইএফআই-এর জেলা কমিটি। দিবাকর দেবনাথকে গ্রেফতারির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

Advt