বাংলায় পা সোমবার, নির্বাচনী কৌশল ঠিক করতে দফায় দফায় বৈঠক মোদির

এরাজ্যে নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে অনেক আগে থেকেই ঘুঁটি সাজানো শুরু করেছে বিজেপি । তারই অঙ্গ হিসাবে রাত গড়ালেই রাজ্যে পা রাখতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । তার আগে দিল্লিতেও দিনভর পশ্চিমবঙ্গ নিয়েই ব্যস্ত থাকলেন প্রধানমন্ত্রী। রবিবার রাজধানীতে বিজেপি-র জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকে যোগ দেন তিনি। তবে সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আলোচনার বদলে, এ বারে বৈঠক জুড়ে ছিল পশ্চিমবঙ্গ, অসম, তামিলনাড়ু, কেরল এবং পুদুচ্চেরি, এই ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গই আলোচনার সিংহভাগ জুড়ে ছিল। দিনভর এই বৈঠক চলবে। পশ্চিমবঙ্গে দলের রণকৌশল কী হওয়া উচিত, তা নিয়ে বিশদে আলোচনা হবে। সেখানে নিজের মতামতও জানাবেন মোদি।
রবিবারের বৈঠকে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা-সহ কেন্দ্রীয় নেতারা তো বটেই, সব রাজ্যের পর্যবেক্ষক, সভাপতি এবং উচ্চপদস্থ নেতারা হাজির আছেন। পশ্চিমবঙ্গকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে সেখানে। তার জন্য বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে রাজ্যে বিজেপি-র সভাপতি দিলীপ ঘোষকেও। কিন্তু হুগলির সাহাগঞ্জে মোদির সফরের প্রস্তুতি দেখতে এই মুহূর্তে ব্যস্ত তিনি। সেই কারণে বৈঠকে যোগ দিতে পারেননি তিনি। তাঁর বদলে রাজ্য বিজেপি-র হয়ে বৈঠকে প্রতিনিধিত্ব করছেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) অমিতাভ চক্রবর্তী।
রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মত,
দলের জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠককে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের নীল নকশা তৈরির কাজে লাগিয়ে, মোদি-শাহ দলের রাজ্য নেতৃত্বকেও সেই গুরুত্ব বোঝাতে চাইছেন ।