মাধ্যমিক বাতিল করে ফর্মুলা ঘোষণা করুক রাজ্য: জয়িতা মৌলিকের কলম

আইসিএসই (Icse) ও সিবিএসই (Cbse) বোর্ডের মডেলে এবার মাধ্যমিক (Madhyamik) পরীক্ষাও বাতিল করুক রাজ্য। নাইনের বার্ষিক পরীক্ষা এবং মাধ্যমিকের টেস্ট পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতেই তাদের মূল্যায়ন করা হোক। না হলে চূড়ান্ত উদ্বেগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন পরীক্ষার্থী (examinee) ও তাদের অভিভাবকরা।

একদিকে এক বছরের বেশি সময় স্কুলের (School) সঙ্গে সম্পর্ক নেই। লেখাপড়া যা হচ্ছে তা সবই অনলাইনে এবং বাড়িতে। করোনা (Carona) সংক্রমণ যেদিকে যাচ্ছে, তাতে অদূর ভবিষ্যতেও মাধ্যমিক পরীক্ষা হওয়ার কোন সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। এই পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নিয়ে চরম উদ্বেগের মধ্যে রয়েছে অনেক পরিবার।

আরও পড়ুন:আবার ইটিং আউট বন্ধ! উইকএন্ডে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলুন টেস্টি টেস্টি পপকর্ণ

ইতিমধ্যেই রাজ্যে সংক্রমণ রুখতে কড়া নির্দেশিকা জারি করেছে রাজ্য। তার মধ্যে রয়েছে একাদশ শ্রেণির পরীক্ষা বাতিল এবং উচ্চমাধ্যমিক নিজের স্কুলে হওয়ার ঘোষণা। অথচ যে পরীক্ষাটি আগে হওয়ার সূচি রয়েছে, সে পরীক্ষা সম্পর্কে কোনও কথা এখনও জানানো হয়নি। ফলে প্রতিদিনই উৎকণ্ঠা বাড়ছে পরীক্ষার্থীদের। স্কুলে গরমের ছুটি ঘোষণা হওয়ায় শিক্ষক-শিক্ষিকারা স্কুলে যাচ্ছেন না। ছাত্র-ছাত্রীদের যোগাযোগ করাটা সমস্যা হচ্ছে। প্রত্যন্ত গ্রামের থাকা পড়ুয়াদের পক্ষে অনলাইন (Online) ক্লাস খুব একটা বাস্তবসম্মত নয়। এই সুযোগে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী মুনাফা আদায়ের চেষ্টা করছে। কোথাও ইন্টারনেটের সহযোগিতা দিয়ে, কোথাও সাজেশন হিসেবে কিছু নোট দিয়ে মোটা অংকের টাকা লুুঠছে একটা চক্র। সন্তানের ভবিষ্যতের কথা ভেবে সে ফাঁদে পা দিচ্ছেন অনেক অভিভাবক। কিন্তু পরীক্ষাটা আদৌ হবে কি না তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। একাদশ শ্রেণির পড়ার সময়টাও কমে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে দিল্লির আইসিএসই ও সিবিএসই ধাঁচে অবিলম্বে মাধ্যমিক পরীক্ষা বাতিলের কথা ঘোষণা করুক রাজ্য। এই দাবি উঠছে পরীক্ষার্থী ও তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে।

Advt