শপথ গ্রহণের আগে টিম প্রশান্ত কিশোরকে ধন্যবাদজ্ঞাপন মমতার

এই পুরো খেলাটায় তিনি ম্যান অফ দ্য সিরিজ। ২০১৯ লোকসভা ভোটে (Loksabha Election) রাজ্যজুড়ে তৃণমূলের (TMC) বিপর্যয়ের পর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন। আর ঠিক দু’বছর পর পর্দার আড়াল থেকে কঠিন ম্যাচ কীভাবে সহজে বের করে আনতে হয়, তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্তস্থাপন করলেন তিনি। একবারে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যে দাবি করেছিলেন, তা মিলে গিয়েছে অক্ষরে অক্ষরে। পেশাদার হলেও তৃণমূলের এই জয় তাঁরও। তিনি প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishore) গোটা দেশে তিনি “দ্য গেম চেঞ্জার” পিকে (PK) নামেই পরিচিত।

আজ, রাজভবনে (Raj Bhavan) রাজ্যপাল (Governor) জগদীপ ধনকড়ের (Jagdeep Dhankar) উপস্থিতিতে রীতি মেনে তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী (CM) হিসেবে শপথ নেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) তার আগে রাজ্যজুড়ে তৃণমূলের বিপুল সাফল্যের পর প্রশান্ত কিশোরের টিমের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সঙ্গে ছিলেন যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

প্রসঙ্গত, ভোটের ফলাফল সামনে আসতেই মিলে যায় পিকের প্রেডিকশন। নরেন্দ্র মোদি-অমিত শাহরা গোটা ভোট পর্বে যতই ২০০ আসন পাওয়ার দাবি করুন না কেন, বাংলার মানুষ বিজেপিকে শুধু প্রত্যাখ্যানই করেনি, আসনে তিন অঙ্কের সংখ্যায় পৌঁছতে পারেনি গেরুয়া শিবির। এই প্রসঙ্গটা ভোটপর্ব শুরুর আগে তুলেছিলেন তৃণমূলের ভোটকুশলী প্রশান্ত কিশোর।

কার্যত চ্যালেঞ্জ নিয়ে প্রশান্ত কিশোর বুক বাজিয়ে বলেছিলেন, বিজেপি দুই অঙ্কের আসন পার করতে পারবে না। বিজেপি ১০০ পার করলে রাজনৈতিক পরামর্শদাতার পেশা তিনি ছেড়ে দেবেন। একই সঙ্গে তিনি জানতে চেয়েছিলেন, অমিত শাহ কী ২০০ না পেলে মন্ত্রিত্ব ছাড়বেন বা রাজনীতি থেকে সন্ন্যাস নেবেন? তখন সেই উত্তর কিন্তু দিতে পারেনি বিজেপির তাবড় নেতাটা।

ফের একবার বিরাট সাফল্যের পর “ভোটগুরু” প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা ইন্ডিয়ান পলিটিক্যাল অ্যাকশন কমিটি বা আইপ্যাক-এর কর্মীরাও উচ্ছ্বসিত। ফল ঘোষণার দিনে আইপ্যাকের সল্টলেক সেক্টর ফাইভের অফিসে কর্মীদের আনন্দ-উচ্ছ্বাসের ছবি ধরা পড়েছে। তাঁদের টানা দু’বছরের পরিশ্রম বিফলে যায়নি। সেটাই উল্লেখ করেছেন আইপ্যাকের সদস্যরা।

শপথ গ্রহণের ঠিক আগের দিন প্রশান্ত কিশোরের গোটা টিমের সঙ্গে কালীঘাটের বাসভবনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৌজন্য সাক্ষাৎ ও কথাবার্তা হয়। সেটা ছিল মূলত সৌজন্য সাক্ষাৎ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। পরিশ্রমের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। মমতার তরফে সকলকে মিষ্টি এবং একটি ব্যাগ উপহার দেওয়া হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আইপ্যাকের সদস্যরাও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

Advt