বৃহস্পতিবার রাজ্য ও কমিশনের রিপোর্ট পাওয়ার পর পুরভোট নিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবে হাইকোর্ট

হাই কোর্ট

রাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন সংক্রমণ ক্রমেই বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে ভোট (Corporation Vote 2022) করানো কতটা যুক্তিসম্মত তা নিয়ে হাইকোর্টে মামলা চলছে। সেই মামলার শুনানিতে আজ মঙ্গলবার আদালত রাজ্য এবং নির্বাচন কমিশনকে আগামী ১৩ জানুয়ারি ভোট করানো সংক্রান্ত বিষয়টি খোলসা করার নির্দেশ দিয়েছে।

কোন পথে ২২ জানুয়ারির পুরভোট (Municipal Election 2022) স্পষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা বৃহস্পতিবার। কারণ, ওইদিনই হলফনামা দিয়ে রাজ্যকে জানাতে হবে করোনা (Covid Situation Bengal) পরিস্থিতিতে কী ভাবে ভোট (Corporation Election) করানোর ভাবনা চিন্তা রয়েছে। রাজ্যের পাশাপাশি নির্বাচন কমিশনকেও জানাতে হবে ওইদিন।

আরও পড়ুন- Ipl: আইপিএলে নতুন স্পনসর, জানালেন আইপিএলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল

ওইদিন রাজ্য সরকারকে জানাতে হবে, যে যে পুর এলাকায় ভোট হচ্ছে সেখানকার সামগ্রিক পরিস্থিতি কেমন। মানে, সংশ্লিষ্ট পুর এলাকার কোথায় কোথায় কত মানুষ করোনা আক্রান্ত, কনটেনমেণ্ট জোন আছে কি না, যদি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকে সব কিছুই জানাতে হবে আদালতকে।  এরই পাশাপাশি, নির্বাচন কমিশনকে হলফনামা দিয়ে জানাতে হবে, সুষ্ঠু ভাবে ভোট করাতে হলে যে পরিমাণ কর্মী লাগে তা পর্যাপ্ত-সুস্থ অবস্থায় আছে কি না। কমিশনের কত জন কর্মী করোনা আক্রান্ত বা সুস্থ তাও জানাতে হবে কমিশনকে। করোনামুক্ত কর্মীদের সংখ্যা আদালতকে জানাতে হবে কমিশনকে। জানাতে হবে কত জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়েছেন।

পুলিশ এবং ভোট কর্মীদের অনেকেই সম্প্রতি অতীতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। অনেকে সুস্থ হয়েছেন। অনেকে এখনও করোনার সঙ্গে এখনও লড়ে চলেছেন। এই পরিস্থিতিতে ভোট করানো যুক্তিসম্মত কি না বা ভোট পিছিয়ে দেওয়া উচিৎ কি না তা নিয়েও এদিন আলোচনা হয়।

Previous articleভোটের আগে অস্বস্তিতে উত্তরপ্রদেশের বিজেপি, দল ছাড়লেন দাপুটে মন্ত্রীসহ ৩ বিধায়ক