স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন জানিয়ে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি মুখ্যমন্ত্রীর বাবার, ছত্তিশগড়ে চাঞ্চল্য

দেশজুড়ে সমস্ত নির্বাচন ব্যালটে করার দাবি জানিয়ে দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে চিঠি লিখলেন ছত্তিশগড়ের (Chhattisgarh) মুখ্যমন্ত্রী ভুপেশ বাঘেলের (Bhupesh Baghel) বাবা নন্দকুমার বাঘেল(Nand Kumar Baghel)। আর যদি তা না করা হয়, তাহলে তিনি ‘স্বেচ্ছামৃত্যু’র পথ বেছে নেবেন। আর সেজন্য অনুমতি চাইলেন খোদ রাষ্ট্রপতির কাছে! স্বাভাবিকভাবে মুখ্যমন্ত্রীর বাবার এহেন চিঠি রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে ছত্তিশগড়ে।

চিঠিতে বাঘেল লিখেছেন, “দেশের মানুষের সাংবিধানিক অধিকার ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। ইভিএম মেশিনে আমি যে নামের পাশে বোতাম টিপছি, কোনও গ্যারান্টি নেই সেখানেই ভোটটা যাচ্ছে কিনা। এই পরিস্থিতিতে, যখন আমার সমস্ত অধিকার বিঘ্নিত হচ্ছে, আমার বেঁচে থাকার উদ্দেশ্যই হারিয়ে গিয়েছে। ভারতের একজন নাগরিক হিসেবে আমার চৈতন্য আমাকে বেঁচে থাকার অনুমতি দিচ্ছে না। মাননীয় রাষ্ট্রপতিজি, আপনি শপথ নিয়েছেন দেশের সংবিধানকে রক্ষা করার। কিন্তু আমার সাংবিধানিক অধিকার সুরক্ষিত নয়। আর তাই মৃত্যু ছাড়া আমার আর কোনও উপায় নেই।” একই সঙ্গে ওই চিঠিতে তিনি আরও লিখেছেন, দেশীয় কিংবা আন্তর্জাতিক কোনও সংস্থায় এখনো প্রমাণ করতে পারেনি ইভিএম ১০০% ত্রুটিমুক্ত। ফলে এমন পদ্ধতি চালু রাখার কোনো যুক্তি নেই।

আরও পড়ুন:আগামী ৪৮ ঘন্টায় রাজ্যজুড়ে অকাল বৃষ্টি, কমবে তাপমাত্রা

আগামী ২৫ জানুয়ারি জাতীয় ভোটার দিবস। যদি তার মধ্যে ব্যালট পদ্ধতিতে ভোটদান ফের দেশজুড়ে চালুর ঘোষণা না করা হয় তাহলে ওইদিনই মৃত্যুর পথ বেছে নেবেন বলে জানাচ্ছেন ‘রাষ্ট্রীয় মতদাতা জাগৃতি মঞ্চে’র সভাপতি প্রবীণ নন্দকুমার। উল্লেখ্য, এর আগেও তাঁকে এই বিষয়ে সরব হতে দেখা গিয়েছে। কিন্তু এভাবে নিজের দাবি পূর্ণ না হলে স্বেচ্ছামৃত্যুর হুমকি দিতে এর আগে দেখা যায়নি তাঁকে।

Previous articleViral: ‘১১৭৬ হরেকৃষ্ণ’ ,মানে কী? কেনই বা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল?