দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের ট্রাস্টি নির্বাচন নিয়ে মামলা দায়ের হল কলকাতা হাই কোর্টে

দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের ট্রাস্টি নির্বাচন নিয়ে মামলা দায়ের হল কলকাতা হাই কোর্টে। মন্দিরের ট্রাস্টির ভুয়ো নির্বাচন করে টানা ৫০ বছর ধরে  একজনই সম্পাদক পদে রয়ে গিয়েছেন এই অভিযোগ এনে আদালতে গেলেন মন্দিরের সেবায়েতদের একাংশ। বর্তমান সম্পাদক কুশল চৌধুরির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। মামলাকারীদের দাবি ২৫০ বছরের পুরনো এই ধর্মস্থানের ক্ষমতা, অর্থ নিয়মবিরুদ্ধভাবে কুক্ষিগত করে রেখেছেন কুশল চৌধুরি।  যদিও কুশল চৌধুরি এই অভিযোগ মানতে নারাজ।

মন্দির সুত্রে জানা গিয়েছে ১৮৭২ সালে রানি রাসমণি নিজের আট নাতির নামে একটি অর্পণ নামা তৈরি করেছিলেন। সেই অর্পণনামা অনুযায়ী  নাতিদের পরে তাদের পুত্ররা মন্দিরের দায়িত্ব সামলাবে।  যদিও রানিমার বড় নাতি বলরাম দাস  এ নিয়ে একটি মামলা  দায়ের করে জানতে চান অর্পণ নামা পরিচালিত হবে কীভাবে। তারপর ১৯২৯ সালে আদালত নির্দেশ দেয় মন্দিরের সেবায়েত কারা হবে  তা ভোটের মাধ্যমে ঠিক করতে হবে। এরপর আরো একাধিক বার বিভিন্ন প্রয়োজনে  মামলা হয়েছে আদালতে।  কিন্তু অভিযোগ উঠেছে বর্তমান সম্পাদক বিগত ৫০ বছর ধরে নির্বাচন বা সকলের সঙ্গে কোনোরকম আলোচনার সুযোগই দেননি। হিসাব নেই মন্দিরের কোষাগারের বিপুল সম্পত্তিরও।

Previous articleইউক্রেনকে অস্ত্রসাহায্য ন্যাটোর, তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের হুমকি ক্ষুব্ধ রাশিয়ার