ললিপপ-রাজনীতি বিশ্বাসী নই: আরও চড়া সুর ‘বাগী’ অর্জুনের

কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রী সঙ্গে বৈঠকের পরেও দাবিতে অনড় বিজেপি সাংসদ

কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকেও গলেনি বরফ। শনিবার দিল্লিতে বৈঠকের পরেই ফের কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন বারাকপুরের বিজেপি (BJP) সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Singh)। রাজ্যের পাটশিল্পে কেন্দ্রীয় বঞ্চনা নিয়ে অর্জুনের বিক্ষোভ দমাতে শনিবার তাঁকে দিল্লি তলব করেন পীযূষ গোয়েল। রাতেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন বিজেপি সাংসদ। কিন্তু রবিবার বেসুরো অর্জুন। সাফ জানালেন, “ললিপপ নিয়ে আমি রাজনীতি করি না”। উল্টে তৃণমূলের আন্দোলন কর্মসূচিকে সমর্থন জানালেন তিনি।

রাজ্যের পাটশিল্পের বিভিন্ন দাবিতে বেশ কিছুদিন ধরেই সরব বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং। চিঠি লিখেছিলেন কেন্দ্রীয় বস্ত্রমন্ত্রীকে। কিন্তু কোনও জবাব না পেয়ে শেষে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এ বিষয়ে উদ্যোগী হতে আর্জি জানিয়ে চিঠি লেখেন বিজেপি সাংসদ। ‘বাগী’ অর্জুনকে বাগে আনতে শনিবার দিল্লি তলব করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। রাতে তাঁদের মধ্যে বৈঠক হয়। কিন্তু এরপরই আরও চড়া সুর বিজেপি সাংসদের। বলেন,  “বহু ললিপপ আমি দেখেছি। শেষে গিয়ে সব ধরাশায়ী হয়ে যায়। ওই সব লালিপপ নিয়ে আমি রাজনীতি করি না। দাবি পূরণ না হলে লাগাতার আন্দোলন চলবে।”

কেন্দ্রের বিজেপি সরকার যে জনবিচ্ছিন্ন, বাংলার দাবি নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার যে আগ্রহী নয়, যত দিন যাচ্ছে তত বুঝতে পারছেন রাজ্যের বিজেপি নেতারা। দেশে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আন্দোলনের মুখে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাও তাদের কাছে স্পষ্ট হয়ে উঠছে। এই পরিস্থিতিতে চটকলের সমস্যা নিয়ে জুট কমিশনারের অফিসে তৃণমূলের (TMC) আন্দোলনের কর্মসূচিকেও সমর্থন করেছেন বিজেপি সাংসদ। আর এসব দেখে অনেকের প্রশ্ন, ফের কি তৃণমূলে ফিরবেন অর্জুন? তবে তৃণমূল অন্দরের খবর, অর্জুন প্রসঙ্গ নিয়ে এখন ভাবার সময় নেই দলীয় নেতৃত্বের।

আরও পড়ুন- পাখির চোখ পঞ্চায়েত ভোট, নয়া তৃণমূল ভবনে মমতার প্রথম মেগা বৈঠক ৫ মে

 

Previous articleIPL: একনজরে চলতি আইপিএলে বাংলার ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্স