নদিয়ায় একই পরিবারের তিনজনকে খুনের ঘটনায় গ্রেফতার প্রতিবেশী

প্রতীকী ছবি

নদিয়ায় পলাশিপাড়ার ধাওয়াপাড়া এলাকায় একই পরিবারের তিনজনকে খুনের ঘটনায় গ্রেফতার প্রতিবেশী। সোমবার রাতে নৃশংস এই হত্যার ঘটনার পর মঙ্গলবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে আটক করে পুলিশ। জেরার মুখে পড়ে অসংলগ্ন উত্তর দিতে শুরু করে ওই প্রতিবেশী। এরপরই তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের নাম কৃষ্ণ মণ্ডল।কী কারণে ওই যুবক পরিবারের তিনজনকে খুন করেছে, তার উত্তর খুঁজছে পুলিশ।


আরও পড়ুন:স্নান-খাওয়া তো দূর গ্রেফতারের পর মুখে কুলুপ এঁটেছে সুশান্ত


সোমবার রাতে নদিয়ার পলাশিপাড়ার রানিনগরের তুতবাগানের বাসিন্দা রাজোয়ার পরিবারের তিনজনকে গলার নলি কেটে খুন করা হয়। মৃতদের নাম  ডোমন রাজোয়ার ও সুমিত্রা রাজোয়ার ও তাঁদের মেয়ে মালা। মালা বিবাহিত। তাঁর একটি সন্তানও রয়েছে।  তাঁর স্বামী কর্মসূত্রে বাইরে থাকায় বাপের বাড়িতে সম্প্রতি ছিলেন তিনি। কিন্তু অনান্যদিনের থেকে সোমবার ছিল একটু আলাদা। সোমবার গভীর রাতে সন্তানের সামনেই তাঁর মা মালা ও দাদু-দিদার গলার নলি কেটে হত্যা করা হয়। এরপরই  তদন্ত শুরু করে পুলিশ। কে বা কারা কেন মালা ও তাঁর পরিবারকে হত্যা করেছে তা খতিয়ে দেখছিল পুলিশ।


স্থানীয়দের ও মালার স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে বেশ কয়েকজনকে আটক করে পুলিশ। স্থানীয়রা যদিও মালার প্রাক্তন প্রেমিকের দিকে আঙুল তুলেছিল। কিন্তু মালার স্বামী বলেছিলেন, জমি নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে অশান্তি হয়েছে। যার ফলে প্রতিবেশী মৃতদের খুনের হুমকিও দিয়েছিলেন। এই অভিযোগের ভিত্তিতেই কৃষ্ণ মণ্ডলকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। এরপরই তাকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশের তরফে এই নারকীয় হত্যালীলার সঙ্গে আর কারা যুক্ত তা জানার চেষ্টা চলছে।

Previous articleমোদি জমানায় সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা সূচকে বিশ্বে ১৮০ দেশের মধ্যে ভারতের স্থান ১৫০