আইপিএল বেটিংয়ে সর্বস্বান্ত হয়ে আত্মহত্যা মা ও ছেলের

মাথায় এমনিতেই ছিল প্রচুর ঋণের বোঝা। সেই ঋণ শোধ  করতে আইপিএল বেটিংয়ে (IPL Batting)টাকা লাগিয়েছিলেন মা ও ছেলে। ভেবেছিলেন এতে হয়তো সামলে নিতে পারবেন সবটা।একেই বলে বিনাশকালে বিপরীত বুদ্ধি।এক ঋণের বোঝা ঘাড় থেকে নামাতে আবার ঋণগ্রস্ত হওয়া। কিন্তু ভাগ্য একেবারেই সহায় হয়নি তাঁদের । যে ম্যাচে যে দলের উপরেই টাকা লাগাচ্ছিলেন হেরে যাচ্ছিলেন। এমন পরিস্থিতিতে নিজেদের সামাল দিতে পারেন নি।বিষ খেয়ে আত্মহত্যা (Suicide)করলেন মা এবং ছেলে।

ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশার রায়গাদা জেলায় (Rayagada District)। সেখানকার বাসিন্দা ৫৫ বছরের মহিলার এক ছেলে এবং এক মেয়ে। বছর চারেক আগে ধার দেনা করে মেয়ের বিয়ে দেওয়ার পর থেকেই প্রচুর ঋণের বোঝা চেপেছিল তাঁর ঘাড়ে। পাওনাদারের চাপ আসছিল ক্রমাগত। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, কিছুদিন আগে এক পাওনাদার এসে বাইরে থেকে  বাড়িতে তালা দিয়ে মা ছেলেকে বন্ধ করে হেনস্থা করে। স্থানীয় পুলিশ এসে মা ও ছেলেকে উদ্ধার করে। একের পর এক এমন  চলছিল। এত অপমান সহ্য করতে না পেরে ঋণমুক্ত হতে আবার টাকা ধার করে বেটিংয়ে লাগান। কিন্তু পরিতাপের বিষয় যে ম্যাচে যে দলের হয়ে টাকা লাগিয়েছেন সেই দলই হেরেছে। শেষপর্যন্ত বিষ খেলেন তাঁরা। পুলিশ সূত্রের খবর,শুক্রবার রাতে বিষ খান মা ও ছেলে। প্রতিবেশীরা তড়িঘড়ি তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। শনিবার সকালে মৃত্যু হয় ছেলেটির।তাঁর চারঘন্টা পরে মৃত্যু হয় মায়ের।প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, গত তিনদিন খাবার জোটেনি মা ও ছেলের। তিনদিন আগেই কয়েকজন পাওনাদার এসে তাঁদের ঘর থেকে  ফ্রিজ, ইনভার্টার-সহ বেশ কিছু দামি জিনিস তুলে নিয়ে যায় তারা। এর পর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। অবশেষে শুক্রবার রাতে বিষ খান তাঁরা।  ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।




Previous articleশাহ ঘুরে যেতেই রাজ্য বিজেপিতে দিলীপকে কোণঠাসা করার প্রক্রিয়া শুরু সুকান্ত-শুভেন্দু গোষ্ঠীর