শিল্পপতি গৌতম আদানিকে রাজ্যসভার প্রার্থী করতে ইচ্ছুক অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী

আগামী ১০ জুন রাজ্যসভার পঞ্চাশের বেশি আসনে নির্বাচন। এর মধ্যে চারটি আসনে নির্বাচন হবে অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে। আর এই আসনগুলির মধ্যে একটি আসনে আদানি গ্রুপের প্রধান গৌতম আদানিকে(Goutam Adani) প্রার্থী করতে চাইছেন ওয়াইএসআর কংগ্রেস সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী জগনমোহন রেড্ডি(jaganmohan Reddy)। জানা গিয়েছে, কোন কারণে আদানি যদি প্রার্থী না হন সেক্ষেত্রে তাঁর স্ত্রী প্রীতি আদানিকে প্রার্থী করতে চান জগনমোহন রেড্ডি।

রাজ্যের শিল্পে জোয়ার আনতে শিল্পপতিকে প্রার্থী করার বিষয় অবশ্য নতুন কিছু নয়, এর আগে অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের সিনিয়র গ্রুপ প্রেসিডেন্ট পরিমল নিথওয়ানিকে রাজ্যসভায় পাঠিয়েছিলেন জগন। সেই পথে হেঁটে গৌতম আদানিকে এবার রাজ্যসভায় পাঠাতে ইচ্ছুক তিনি। যদিও এ বিষয়ে গৌতম আদানি তরফে এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে অন্ধ্রপ্রদেশে শিল্পসম্ভাবনায় বিষয়টিকে মাথায় রেখে আদানিকে রাজ্যসভায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হলেও এর পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন:রোজ ভোরে উধাও কয়েক লক্ষ টাকার পাইপ ! পুরকর্মীর তৎপরতায় ধৃত পাঁচ

রাজনৈতিক মহলের দাবি গৌতম আদানি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। যে কারণে বিজেপির টিকিটে তাঁকে রাজ্যসভায় পাঠাতে চাইছে না গেরুয়া শিবির। কারণ মোদি শাসনে শিল্পপতিদের বাড়বাড়ন্ত নিয়ে বারবার বিরোধী তোপের মুখে পড়তে হয়েছে বিজেপি সরকারকে। ফলস্বরূপ এই ঝুঁকি একেবারেই নিতে রাজি নয় বিজেপি। যার জেরেই অবিজেপি রাজ্য অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে আদানিকে রাজ্যসভায় পাঠানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দু’বার এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে একবার বৈঠক হয়েছে অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রীর। আর সেই বৈঠকেই আদানিকে রাজ্যসভায় পাঠানোর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে অনুমান রাজনৈতিক মহলের।




Previous articleরাজ্যকে আবাস যোজনার টাকা দ্রুত দেবেন না: মোদিকে চিঠি শুভেন্দুর, পাল্টা তৃণমূল