আমিই খুন করেছি, যা সাজা হয় হবে: ছাত্রীর খুন আদালতে কবুল সুশান্তর

“খুন করেছি, যা সাজা হয় হবে”- বহরমপুরে ছাত্রী খুনে আদালতে কবুল ধৃত সুশান্ত চৌধুরীর (Sushanta Chowdhury)। তবে, এর কারণ হিসেবে সে দায়ী করেছে মৃত সুতপা চৌধুরীর (Sutapa Chowdhury) বাবা-মাকে। তাঁরাই নাকি সুশান্তকে মানসিক নির্যাতন করেন।

২ মে বহরমপুরের শহিদ সূর্য সেন রোডে এক মেসের সামনে বহরমপুর গার্লস কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী সুতপা চৌধুরীকে কুপিয়ে খুন করা হয়। ঘটনায় গ্রেফতার করা হয় তরুণীর প্রাক্তন প্রেমিক সুশান্তকে। পুলিশ (Police) সূত্রে খবর, জেরাতেও খুনের কথা স্বীকার করে অভিযুক্ত। শনিবার, তাকে সুশান্তকে বহরমপুর সিজেএম আদালতে তোলা হলে সে বলে, “সুতপার মা-বাবা দিনের পর দিন মানসিক অত্যাচার করত। তাই ওকে খুন করেছি। এর জন্য যা শাস্তি হয় তা মাথা পেতে নেব।“ তাকে ২ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। ১৬ মে ফের সুশান্তকে আদালতে তোলা হবে।

আরও পড়ুন- শিল্পপতি গৌতম আদানিকে রাজ্যসভার প্রার্থী করতে ইচ্ছুক অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী

Previous articleশিল্পপতি গৌতম আদানিকে রাজ্যসভার প্রার্থী করতে ইচ্ছুক অন্ধ্রের মুখ্যমন্ত্রী