সিদ্ধান্ত বৈঠকে উপস্থিত ইয়াচুরি, যশবন্ত নিয়ে চুপ থাকার বার্তা আলিমুদ্দিনকে

বিরোধী জোটে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী চূড়ান্ত করতে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) যখন প্রথম বৈঠক ডাকেন, সেখানে সিপিআইএমের তরফে প্রতিনিধির উপস্থিত থাকার বিষয়ে সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিল বঙ্গ সিপিআইএম।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে (President Election) বিরোধী জোটের সর্বসম্মত প্রার্থী যশবন্ত সিনহা (Yashwant Sinha)। মঙ্গলবার, দিল্লিতে যে বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পার্টির সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি (Sitaram Yechuri)। এবার প্রার্থী নিয়ে আলিমুদ্দিনকে চুপ থাকার নির্দেশ দিল কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।


মঙ্গলবারের বৈঠকে বাম-কংগ্রেস, আরজেডি-সহ সমস্ত বিরোধী দলই সর্বভারতীয় তৃণমূলের সহ-সভাপতি যশবন্ত সিনহার নাম সমর্থন করে। এরপরেই আলিমুদ্দিনকে (Alimuddin Street) এবিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে। রাজ্যের সিপিআইএমের (CPIM)-এর তরফে বিরোধীদের রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী নিয়ে কোনও নেতিবাচক মন্তব্য যেন না করা হয়- সে বিষয়ে বার্তা দিয়েছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

বিরোধী জোটে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী চূড়ান্ত করতে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) যখন প্রথম বৈঠক ডাকেন, সেখানে সিপিআইএমের তরফে প্রতিনিধির উপস্থিত থাকার বিষয়ে সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরির সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছিল বঙ্গ সিপিআইএম। সেখানে ছিল সিপিআইএম ও সিপিআই। রাজ্যসভা দলের নেতা এলমারাম করিমকে প্রতিনিধি হিসাবে বৈঠকে পাঠিয়েছিলেন সীতারাম।

মঙ্গলবার, সংসদের অ্যানেক্স ভবনের বৈঠকে অবশ্য কংগ্রেসের মল্লিকার্জুন খাড়গে, জয়রাম রমেশের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং ইয়েচুরি। সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের যুক্তি যশবন্ত তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহসভাপতির পদ ছেড়ে দেওয়ায় তাঁকে সমর্থনের ক্ষেত্রে নীতিগত অসুবিধা নেই। বিজেপি সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে সব বিরোধী দলগুলি সর্বসম্মত প্রার্থীকে সমর্থনের রাস্তায় হেঁটেছে দিল্লির (Delhi) এ কে গোপালন ভবন। বঙ্গ সিপিআইএম যাতে বিভিন্ন রাস্তায় না চলে তার বার্তাই পৌঁছেছে আলিমুদ্দিনে।



Previous articleমারাঠাভূমে চরম রাজনৈতিক অস্তিরতা, ইস্তফা দিতে পারেন ঠাকরে