মোদির উদ্বোধনের পর ৫ দিনেই ধসে গেল ১৫ হাজার কোটির বুন্দেলখন্ড এক্সপ্রেসওয়ে

প্রধানমন্ত্রীর নতুন ভারত গড়ার প্রতিশ্রুতি যে শুধুমাত্র কথার ফানুস তার প্রমাণ মিললো আরও একবার। গত ১৬ ই জুলাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি(Narendra Modi) ঢাকঢোল পিটিয়ে, এতো ঘটা করে বুন্দেলখন্ডের যে এক্সপ্রেসওয়ের(Bundelkhand Expressway) উদ্বোধন করেছিলেন তা ধসে যেতে পাঁচ দিনের বেশি সময় নিল না। অর্থাৎ পাঁচ দিনেই ধসে গেলে ১৫ হাজার কোটির এক্সপ্রেসওয়ে। ইতিমধ্যেই সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়(Social Media)। ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিও শোয়ার করেছেন সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব(Akhilesh Yadav) সহ অনেকেই।

আরও পড়ুন- কালীপুজো নিয়ে লেকচার সিরিজ, ফের বিতর্কে বিশ্বভারতী

গত শনিবার উত্তরপ্রদেশের জালাউনে ২৯৬ কিলোমিটার দীর্ঘ এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার পাঁচ দিন কাটতে না কাটতেই বুধবার বিকেলে, বৃষ্টিতে ধসে গেল রাস্তার একাংশ। ওই ধসের কবলে পড়েছে দু’টি গাড়ি ও একটি মোটরবাইক। তারপরেই দ্রুত রাস্তা মেরামতির কাজ শুরু হয়। কিন্তু ততক্ষণে প্রশ্নটা উঠেই গেছে, রাস্তা তৈরির মেটিরিয়াল এবং সেই মেটিরায়েলের গুনমান নিয়ে।

প্রসঙ্গত, বুন্দেলখন্ডের এই এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘ভোটের লোভে পাইয়ে দেওয়ার রাজনীতি চলছে দেশজুড়ে। এই সংস্কৃতি মারাত্মক।‘ বুন্দেলখণ্ড এক্সপ্রেসওয়েকে কেন্দ্র করে মোদির সেই কথাগুলিই এবার অন্য প্রশ্ন তুলে দিল।

বুন্দেলখন্ড এক্সপ্রেসওয়ে ভেঙে যাওয়ায় ইতিমধ্যেই সরব হয়েছেন বিরোধীরা। ভাইরাল হওয়া ছবিগুলি শেয়ার করেছেন সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদব-সহ অনেকেই। বাদ যাননি বিজেপির ‘বিদ্রোহী’ সাংসদ বরুণ গান্ধীও। প্রশ্ন উঠছে মেক ইন ইন্ডিয়ার স্বপ্ন দেখানো মোদিবাবুর ১৫ হাজার কোটির এক্সপ্রেসওয়ে যদি পাঁচ দিনেই ধসে যায়, তাহলে দেশের ভবিষ্যত কতটা মজবুত!

 

 

Previous articleকেন্দ্রকে ২১ জুলাই আক্রমণ করায় প্রতিহিংসার রাজনীতি বিজেপির : ফিরহাদ হাকিম