প্রধানমন্ত্রী হলে চিনের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেব, বার্তা ঋষি সোনাকের

ব্রিটেনের (Britain) পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী (Prime Minister) নির্বাচিত হলে চিনের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিলেন দেশের অর্থমন্ত্রী তথা ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি সোনক (Rishi Sunak)। গত রবিবার নিজের এই অবস্থানের কথা জানিয়েছেন তিনি। এর পাশাপাশি চিনকে দেশ ও বিশ্বের নিরাপত্তার জন্য ‘এক নম্বর হুমকি’ (number one threat)বলেও অভিহিত করেছেন সোনক।

সম্প্রতি ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস (Liz Truss) অভিযোগ করেন, চিন ও রাশিয়ার প্রতি দুর্বল ঋষি সোনক। ট্রাসের এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই সোনক চিনের বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে ওই দেশের এক সংবাদ‌ মাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের প্রধান মন্ত্রিত্বের প্রতিযোগিতায় ঋষি সোনকই একমাত্র প্রার্থী যার ‘যুক্তরাজ্য-চিনের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়ন নিয়ে স্পষ্ট ও বাস্তবসম্মত দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে’। বরিস জনসনের উত্তরাধিকারী হওয়ার দৌড়ে থাকা লিজ ট্রাসকে উদ্ধৃত করে ওই দেশের সংবাদ মাধ্যম বলেছে, ‘এ ধরনের সমর্থন (চিনের) কেউ চাইবে না।’

সোনকের দাবি, যুক্তরাজ্যের প্রযুক্তি চুরি করছে এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে অনুপ্রবেশ করছে চিন। রাশিয়া থেকে তেল কিনে আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ভ্লাদিমির পুতিনকে সমর্থন করছে এবং তাইওয়ানসহ প্রতিবেশী দেশগুলিকে হয়রানি করার চেষ্টা করছে। ক্ষমতায় আসলে প্রথম দিন থেকেই চিনের এইসব কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানিয়েছেন ভারতীয় বংশদ্ভূত ঋষি সোনক।


Previous article‘ডেথ পুল’ বা মৃত্যুপুরীর হদিস পেলেন বিজ্ঞানীরা