ফের অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে ইডি, কেন?

অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের দু’টি ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হওয়া টাকার পাহাড় কোথা থেকে এল? তার সদুত্তর পায়নি ইডি। তাই সোমবার সকালের পর ফের রাতেও অর্পিতার বেলঘরিয়ার দুটি ফ্ল্যাটে অভিযান চালাল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। সোমবার সকালে অর্পিতার বেলঘরিয়ার ক্লাব টাউন হাইটসে ইডির কর্তারা রেজিস্টার এবং মাই গেট অ্যাপের তথ্য সংগ্রহ করেন। এরপর সোমবার রাতেও ফের ওই আবাসনে ইডির তদন্তকারী আধিকারিকদের চার সদস্যের এক প্রতিনিধি দল যান। টানা দুই ঘণ্টা ধরে ফ্ল্যাট চত্বরের সিসিটিভি ফুটেজগুলি খতিয়ে দেখেন। সেখান থেকে বেশ কিছু ছবিও সংগ্রহ করেন তাঁরা।

আরও পড়ুন:বুধবার মন্ত্রিসভার রদবদল: কারা আসছেন, কাদের সরানো হবে? জল্পনা তুঙ্গে

কিন্তু কী কারণে এসেছিলেন ইডি আধিকারিকরা? এ প্রসঙ্গে বেলঘরিয়ার ওই আবাসনের পরিচালন সমিতির সম্পাদক জানিয়েছেন,ইডির আধিকারিকদের নির্দেশমত তাঁদের হাতে আবাসনের রেজিস্টার এবং মাই গেট অ্যাপের তথ্য তুলে দেওয়া হয়েছে। প্রযুক্তিগত কারণেই সিসিটিভি ফুটেজ তুলে দেওয়া যায়নি। মনে করা হচ্ছে, সিসিটিভি ফুটেজের তথ্য সংগ্রহ করার জন্যই দ্বিতীয় বার সেখানে এসেছেন আধিকারিকেরা।

প্রসঙ্গত, বেলঘরিয়ার এই আবাসনের ফ্ল্যাট থেকে নগদ ২৭ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা সহ বহুমূল্য সোনা, রূপা উদ্ধার করেছে ইডি। তারপর থেকেই তদন্তের স্বার্থে শনিবার ফের আবাসনে অর্পিতার ফ্ল্যাটে ঠিক কাদের যাতায়াত ছিল, তা নথিভুক্ত করা রেজিস্টার, মাই গেট অ্যাপের তথ্য এবং সিসিটিভি ফুটেজ চেয়ে গিয়েছিলেন।   তার নথি সংগ্রেহ করতেই সোমবার ফের একবার ইডির কর্তারা সেখানে হাজির হন।

Previous articleBreakfast news :  ব্রেকফাস্ট নিউজ