রাম-বামের বিক্ষোভে জেরবার, অব্যহতি চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি রবীন্দ্রভারতীর উপাচার্যের

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, উপাচার্যকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো পড়ুয়ারা বাম এবং সঙ্ঘ পরিবার ঘনিষ্ঠ। উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবেই এই কাজ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে এই দুই সংগঠন।

রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে (Rabindra Bharati University) অচলাবস্থা তৈরির চেষ্টা বাম এবং সঙ্ঘ পরিবার ঘনিষ্ঠ ছাত্র সংগঠনের। বাধ্য হয়ে সরে যেতে চাইছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী (Sabyasachi Basu Roy Chowdhury)। চিঠি লিখলেন মুখ্যমন্ত্রীকে (CM)। বারবার বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন পড়ুয়ারা, কারণে -অকারণে উপাচার্যকে আক্রমণ করা হচ্ছে। এবার এই সব কিছু থেকে অব্যহতি চাইলেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (Vice Chancellor) সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী। তিনি অভিযোগ করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের একাংশ এবং বেশকিছু শিক্ষাকর্মী সঙ্গত কারণ ছাড়াই উপাচার্যকে টার্গেট করে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। আর তার জেরে কাজ করতে সমস্যা হচ্ছে বলে দাবি তাঁর। সেই কারণে উপাচার্য পদ থেকে অব্যহতি চেয়ে এবার তিনি চিঠি দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee)।

তাঁর সিদ্ধান্তের কথা প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই নতুন করে আলোচনা শুরু হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী বলেন যে গত কয়েক মাস ধরেই বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশৃঙ্খলা তৈরির একটা প্রচেষ্টা চলছে। একদল ছাত্র এবং কিছু শিক্ষাকর্মী উপাচার্যের ঘরে বারবার বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কোনও সঙ্গত কারণ ছাড়াই। যেটা কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না বলে মত তাঁর। গত ১০ জুন রবীন্দ্র ভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি চেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিয়েছিলেন সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী। এরপর গত ১৮ জুলাইও একই আবেদন জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি লেখেন তিনি। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকেও বিষয়টি জানিয়েছেন বলে জানান সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী। অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, উপাচার্যকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো পড়ুয়ারা বাম এবং সঙ্ঘ পরিবার ঘনিষ্ঠ। উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবেই এই কাজ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে এই দুই সংগঠন।

Previous article‘ষড়যন্ত্রী’ কে স্পষ্ট বলুক: পার্থর উদ্দেশ্যে বললেন তাপস রায়