স্ত্রী বাবলির সমস্ত শেয়ার বান্ধবীর নামে হস্তান্তর! রাজসাক্ষী হওয়ার আর্জি অর্পিতার

এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতির অভিযোগে ইডি হেফাজতের পর কিছুদিন প্রেসিডেন্সি জেলবন্দি থেকে বর্তমানে সিবিআই হেফাজতে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বর্তমানে তাঁর ঠিকানা নিজাম প্যালেস। পার্থর বিশেষ ও ঘনিষ্ঠ বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ও আলিপুর মহিলা সংশোধনাগারে বিচারাধীন বন্দি। ইতিমধ্যেই ইডির তরফে আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে চার্জশিট। সেখানে কেন্দ্রীয় এজেন্সির দাবি পার্থ বান্ধবী অর্পিতা রাজসাক্ষী হওয়ার আবেদন করেছেন। ইডি জেরায় অর্পিতা আরও অনেক রহস্য ফাঁস করেছেন।

সোমবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে পেশ করা চার্জশিটে ইডি জানিয়েছে, সন্তান দত্তক নিয়ে মা হতে চেয়েছিলেন তিনি। সম্মতি ছিল পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। এছাড়াও স্ত্রী বাবলি চট্টোপাধ্যায়ের মৃত্যুর পর বিভিন্ন কোম্পানিতে তাঁর শেয়ার অর্পিতার নামে হস্তান্তর করা হয়েছিল। পার্থ-ঘনিষ্ঠ এক হিসাবরক্ষক কার্যত তাঁকে চাপ দিয়েই ওই শেয়ার হস্তান্তর করিয়েছিলেন বলে লিখিত বয়ানে জানিয়েছেন পার্থ বান্ধবী।

অর্পিতার ডায়মন্ড সিটি ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে পাওয়া নগদ প্রায় ৫০ কোটি টাকা এবং ৫কোটির গয়না পার্থের বলেই লিখিত বয়ানে জানান অর্পিতা। এছাড়াও চার্জশিটে উল্লেখ রয়েছে নেপাল, তাইল্যান্ড, বাংলাদেশ, সিঙ্গাপুর, হংকং, মালয়েশিয়া এবং আমেরিকার মুদ্রাও পাওয়া গিয়েছে অর্পিতার ফ্ল্যাটে।

অর্পিতার নামে ৩১টি জীবন বিমার প্রায় দেড় কোটি টাকা বার্ষিক প্রিমিয়াম জমা দিতেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। প্রাক্তন মন্ত্রীর মোবাইলের ফরেন্সিক পরীক্ষা করার পরে জীবন বিমার প্রিমিয়াম দেওয়ার ব্যাংক লেনদেনের বিষয়টি স্পষ্ট হয়। চার্জশিটে এসএসসি কাণ্ডে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অপসারিত সভাপতি মানিক ভট্টাচার্যেরও নাম উঠে এসেছে।

Previous articleকোরান ধর্মগ্রন্থ, গীতা নয়: বিতর্কিত মন্তব্য কর্ণাটকের মন্ত্রীর