স্টোন অপারেশন করতে গিয়ে কিডনি গায়েব, যোগীরাজ্যে হাসপাতালের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ

কিডনি স্টোনের অপারেশন(Oparation) করতে হাসপাতালে(Hospital) গিয়েছিলেন এক ব্যক্তি। তবে অস্ত্রোপচারের পর দেখা গেল গায়েব হয়ে গিয়েছে কিডনি। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশে কাশগঞ্জে(Uttar pradesh)। হাসপাতালের বিরুদ্ধে কিডনি পাচারের অভিযোগ তুলেছেন সুরেশ চন্দ্র নামে এক হোমগার্ড।

কাশগঞ্জের জেলাশাসক বাসভবনে কর্মরত হোমগার্ডের অভিযোগ চলতি বছরের ১২ এপ্রিল তাঁর শারীরিক পরীক্ষা হয়৷ তার পর তিনি জানতে পারেন যে তাঁর শরীরের বাঁদিকের কিডনিতে স্টোন হয়েছে৷ চিকিৎসক তাঁকে অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দেন ৷তিনি জানিয়েছেন, গত ১৪ এপ্রিল তিনি পারি হাসপাতালে ভরতি হন৷ সেখানেই তাঁর অস্ত্রোপচার হয়৷ প্রথমে তিনি বিষয়টি বুঝতে পারেননি৷ প্রায় আট মাস পর তিনি টের পেয়েছেন যে তাঁর শরীরে একটি কিডনি নেই (Kidney Trafficking)৷ তাঁর দাবি, কিছুদিন ধরেই তাঁর পেটে ব্যাথা হচ্ছিল ৷ ওই একই হাসপাতালে তিনি আবার শারীরিক পরীক্ষা করান৷ তারপর বিষয়টি নজরে আসে৷

এই ঘটনায় সুরেশ সরাসরি অভিযোগ তুলেছেন হাসপাতালের কর্মী রণবীর চৌহানের বিরুদ্ধে৷ শারীরিক পরীক্ষার পর তাঁকে রণবীরই কিডনি স্টোনের কথা জানিয়েছিলেন৷ আর ওই হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দিয়েছিলেন৷ এরপরই শরীর থেকে কিডনি গায়েব হয়ে যায় তাঁর।

Previous articleবিধাননগরে ডেঙ্গি সচেতনতা প্রচার: প্ল্যাকার্ড হাতে পথে মন্ত্রী-মেয়র, মশার লার্ভার উৎস খুঁজছে ড্রোন