রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে অখিল গিরির মন্তব্যের প্রেক্ষিতে তদন্ত রিপোর্ট চাইল হাই কোর্ট 

রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সম্পর্কে অখিল গিরির বিরুদ্ধে যে মন্তব্যের অভিযোগ উঠেছে, তা খতিয়ে দেখে আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে তদন্তের অগ্রগতির রিপোর্ট হলফনামা দিয়ে আদালতে জানাতে হবে পুলিশকে। বৃহস্পতিবার রাজ্যেকে এই নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাই কোর্ট।

আরও পড়ুন: চার তৃণমূল নেতার পাশে দাঁড়িয়ে অখিল গিরি বললেন, সাসপেনশন অবৈধ

নন্দীগ্রামে একটি জনসভায় দেশের রাষ্ট্রপতির বিরুদ্ধে অবমাননাকর মন্তব্য করার অভিযোগে জনস্বার্থ মামলা করেছিলেন আইনজীবী সুস্মিতা সাহা দত্ত। এদিন আদালতে এই মামলার শুনানিতে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়, অখিল গিরির বিরুদ্ধে যে সমস্ত অভিযোগ জমা পড়েছে সেই তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। তারপরই আদালতের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব এবং বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চ রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব করে । আগামী ১২ ডিসেম্বর এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে।

অখিল-মন্তব্যের মামলার শুনানিতে বুধবার রাজ্যের তরফে হাই কোর্টকে জানানো হয়, মন্ত্রী অখিল গিরির বিরুদ্ধে যে সব অভিযোগ জমা পড়েছে, তার তদন্ত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ। রাষ্ট্রপতির উদ্দেশে বিতর্কিত মন্তব্য করার অভিযোগে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে করা জনস্বার্থ মামলার প্রেক্ষিতে হাই কোর্টে এমনটাই জানিয়েছিল রাজ্য সরকার।

এদিকে রামনগরের তৃণমূল বিধায়ক অখিলের মন্তব্যের বিরুদ্ধে  রাজভবনে গিয়ে তাঁর অপসারণের দাবি করে এসেছে বিজেপি পরিষদীয় দল। পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় আসন্ন শীতকালীন অধিবেশনে নিন্দাপ্রস্তাব আনার প্রস্তুতি শুরু করেছে তারা। কিন্তু সেই নিন্দাপ্রস্তাব আদৌ গৃহীত হবে কি না, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। বুধবার বিধানসভায় বিজনেস অ্যাডভাইসরি (বিএ) কমিটির বৈঠকের পর সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। অখিলের বিরুদ্ধে বিজেপির নিন্দাপ্রস্তাব আনার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে স্পিকার বলেন, ‘‘অখিলবাবুর বিরুদ্ধে এমন কোনও প্রস্তাব তাঁর কাছে জমা পড়েনি। পড়লে অবশ্যই তা তিনি বিবেচনা করবেন।’’ এর পরেই তিনি আরও বলেছেন, ‘‘বিষয়টি এখন আদালতের বিচারাধীন। বিধানসভার আওতাধীন কি না, তা-ও খতিয়ে দেখতে হবে।’’

Previous articleপূজা ভাটের পর ভারত জোড়ো যাত্রায় রাহুলের পাশে হাঁটলেন মুনমুন কন্যা রিয়া সেন