বিধানসভায় সব দলের প্রতিনিধি থাকা উচিত: কোন ‘ক্ষয়িষ্ণু’ দলকে ইঙ্গিত অধ্যক্ষের!

অধ্যক্ষের কথায়, "বহুদলীয় ব্যবস্থার মধ্যে কংগ্রেসের মত জাতীয়তাবাদী দল থাকুক আমরা চাই। ১০০ বছরের পুরনো দল কংগ্রেস কিংবা ৩৪ বছর রাজত্ব করেছে যে দল সিপিএম তাদের কোনও প্রতিনিধি বিধানসভায় না থাকা দুর্ভাগ্যজনক"।

বিধানসভায় সব রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি থাকা উচিত। বিধানসভায় দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর (Indira Gandhi) ১০৫ তম জন্মবার্ষিকী পালন অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করলেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দোপাধ্যায় (Biman Banerjee)। বিধায়ক ইদ্রিস আলি-সহ অনেকই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর প্রতিকৃতিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

অনুষ্ঠানের শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে অধ্যক্ষ বলেন, কংগ্রেস ক্ষয়িষ্ণু হলেও প্রাসঙ্গিকতা হারিয়েছে বলে তিনি মনে করেন না। তবে, বিধানসভায় (Assembly) সমস্ত রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিত্ব থাকা উচিত। অধ্যক্ষের কথায়, “বহুদলীয় ব্যবস্থার মধ্যে কংগ্রেসের মত জাতীয়তাবাদী দল থাকুক আমরা চাই। ১০০ বছরের পুরনো দল কংগ্রেস কিংবা ৩৪ বছর রাজত্ব করেছে যে দল সিপিএম তাদের কোনও প্রতিনিধি বিধানসভায় না থাকা দুর্ভাগ্যজনক”। ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে একটিও আসন পায়নি বাম-কংগ্রেস। তাদের জোটের থেকে আইএসএফের একমাত্র বিধায়ক রয়েছেন বিধানসভায়। এদিন সেই বিষয়টি নিয়েই মন্তব্য করেন অধ্যক্ষ।

রাজ্যে বিধানসভার অধিবেশনে বিরোধীদের বলার জন্য ৫০ শতাংশ সময় দেওয়া হয় বলেও এদিন দাবি করেন অধ্যক্ষ। বিশিষ্ট সমাজ সংস্কারক ব্রহ্মানন্দ কেশবচন্দ্র সেনের জন্মবার্ষিকীও যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে বিধানসভা ভবনে।

Previous articleশুভেন্দু আসলে অভিষেক ফোবিয়ায় ভুগছে : কুণাল