এবার কুন্তলের মুখে নীলাদ্রি ঘোষের নাম,ডায়েরির সাঙ্কেতিক চিহ্ন উদ্ধারে তৎপর ইডি

নীলাদ্রিকে চেনেন বলে জানিয়েছেন তাপসও। এ বার সেই নীলাদ্রিকে নিয়ে ফের মুখ খুললেন কুন্তল।

 নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় তৃণমূল যুবনেতা কুন্তল ঘোষ গ্রেফতার হওয়ার পর থেকে বার বার সামনে এসেছে নীলাদ্রি ঘোষের নাম। কিন্তু কী তাঁর পরিচয় ? তা নিয়েও উঠছে একাধিক প্রশ্নও। কুন্তলের অভিযোগ, তাপস মণ্ডলের পাশাপাশি এই নীলাদ্রি ঘোষ নাকি হুমকি দিয়ে তাঁর কাছ থেকে টাকা আদায় করতেন। নীলাদ্রিকে চেনেন বলে জানিয়েছেন তাপসও। এ বার সেই নীলাদ্রিকে নিয়ে ফের মুখ খুললেন কুন্তল।

এদিকে কুন্তলের ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে উদ্ধার হয়েছে বেশ কিছু নথি৷ সেই সকল নথিতে রয়েছে বেশ কিছু রহস্যজনক সাঙ্কেতিক চিহ্ন! এমনটাই ইডি সূত্রে খবর। সেই সাঙ্কেতিক চিহ্নগুলির সারমর্ম উদ্ধারে তৎপর ইডি আধিকারিকরা।

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলার তদন্তে নেমে শুক্রবার চিনার পার্ক এলাকায় একটি আবাসনের কুন্তলের জোড়া ফ্ল্যাটে হানা দেয় ইডি৷ হুগলির যুবনেতা কুন্তল ঘোষের ফ্ল্যাট থেকে একটি নোটবুক এবং বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি উদ্ধার হয়েছে৷ তদন্তকারী অফিসারদের হাতে এসেছে ব্যাঙ্কের নথি। সেই সকল নথি খতিয়ে দেখার সময় ইডি আধিকারিকদের নজরে আসে কিছু সাঙ্কেতিক চিহ্ন৷ ইডি আধিকারিকরা জানান, কুন্তলের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার ওই সব নথিতে কয়েকটি গোলাকার সাঙ্কেতিক চিহ্ন রয়েছে। সেই সাঙ্কেতিক চিহ্নগুলির সারমর্ম উদ্ধারে তৎপর হয়ে উঠেছেন ইডি আধিকারিকরা। এই সাঙ্কেতিক চিহ্নের সঙ্গে টাকা-পয়সার লেনদেনের কোনও সম্পর্ক রয়েছে কি না, তা-ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

নিয়োগ দুর্নীতির তদন্ত চলাকালীন জেরার মুখে তাপস দাবি করেন, শিক্ষক পদে চাকরিপ্রার্থীদের থেকে কুন্তল কোটি কোটি টাকা নিয়েছেন। তাপসের দাবি, ৩২৫ জন শিক্ষক পদপ্রার্থীর কাছ থেকে ৩ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা নিয়েছেন কুন্তল। এছাড়াও ঘুর পথে হুগলির যুবনেতার কাছে ১৯ কোটিরও বেশি পৌঁছেছে৷ এর পরই তদন্ত শুরু করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই এবং ইডি। কুন্তলের পাল্টা দাবি, তাঁকে ফাঁসানো হচ্ছে। তিনি তাপসকে অনেক টাকা দিয়েছেন৷

 

Previous articleগণছাঁটাইয়ের কো*পে অন্তঃসত্ত্বা মহিলা! চাকরি থেকে বরখাস্ত করে সমালোচনার মুখে গুগল