বাংলার ভোটে বিজেপির ‘মুখ’ নেই, স্বীকার করলেন অমিত শাহ

বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে পালাবদলের নিয়ে সুর চড়িয়ে ভোটের পালে হাওয়া লাগাতে চাইছেন বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে কোনও মুখ নেই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে- এক সর্বভারতীয় চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে জানালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা অমিত শাহ। যদিও তিনি বলেন, রাজ্যে শাসকদলের পরিবর্তন করতে চাইছেন। এখানে বিরোধী রাজনৈতিকদলের নেতা-কর্মীদের উপর অত্যাচার চলছে বলেও অভিযোগ করেন অমিত শাহ। কিন্তু বিজেপি ক্ষমতায় এলে মুখ্যমন্ত্রীকে হবেন? সাংবাদিকের এই প্রশ্নের উত্তরে কিন্তু কোনও নাম বলতে পারলেন না কেন্দ্রীয় নেতা। এ থেকেই স্পষ্ট এখনও বাংলার সংগঠন নিয়ে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পরিকল্পনা নেই।

প্রসঙ্গ বিহার:
বিহার নির্বাচন নিয়ে আশাবাদী বিজেপি। যতই এলজেপি তাদের সঙ্গ ছাড়ুক না কেন নীতিশ কুমারকে পাশে নিয়েই বিহারের ভোটে তাঁরা বাজিমাত করবেন বলে আশা প্রকাশ করেন অমিত শাহ। তাঁর মতে, বিজেপির জোট সরকার সে রাজ্যে যে পরিমাণ উন্নয়ন করেছে, তাতে নির্বাচনে জেতার বিষয়ে তাঁরা মোটেই চিন্তিত নন।

প্রসঙ্গ হাথরাস:
হাথরাসের মতোই ঘটনা ঘটেছে রাজস্থানে, কিন্তু সেই ঘটনা নিয়ে কোনো তোলপাড় হয়নি- কেন? প্রশ্ন তুললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এরপরেই তিনি বলেন, কোনও দুঃখজনক ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করাটা একেবারেই উচিত নয়। হাথরাসের ঘটনায় অভিযুক্ত ধরা পড়েছে, সিবিআই তদন্ত ভার নিয়েছে, সিট গঠন হয়েছে। যোগী সরকার সঠিক পথেই এগোচ্ছে বলে দাবি অমিতের।

প্রসঙ্গ অসম:
অসমের সংখ্যালঘুদের স্থানচ্যুত করা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অমিত শাহ বলেন, পুনর্নির্মাণের কাজের জন্য সেখানকার বাসিন্দাদের সরানো হয়েছে। এটাতে রাজনীতির কোনো বিষয় নেই।

আরও পড়ুন- আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে গ্রেফতার বিজেপি প্রভাবিত রাজ্য সরকারি কর্মী সংগঠনের নেতা