তৃণমূলত্যাগী শ্যামাপ্রসাদকে বিজেপির রথ থেকে নামিয়ে দেওয়া হল! ‘শুদ্ধিকরণ’ করা হল রথের

সেই আদি-নব্যর লড়াই বিজেপিতে! তবে কি তৃণমূল ছেড়ে যারা বিজেপিতে যাচ্ছেন তাঁরা সম্মান পাচ্ছে না? আর কয়েক মাস পরেই রাজ্যে বিধানসভা ভোট। তার আগে ভারতীয় জনতা পার্টি পরিবর্তন যাত্রা রথ রাস্তায় নামিয়েছে। এর মধ্যেই ঘটে গেল চরম অস্বস্তিকর ঘটনা। সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা রথ থেকে একরকম নামিয়ে দেওয়া হলো শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে। শুধু তাঁকে নামিয়ে দেওয়া হল না তারপর দলীয় কর্মীরা রথ ‘শুদ্ধিকরণ’ করলেন দুধ আর গঙ্গা জল দিয়ে।

মেদিনীপুর কলেজ মাঠে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাত ধরেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন বিষ্ণুপুর পুরসভার প্রাক্তন পুরপ্রধান শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়। জানা যাচ্ছে, বিজেপির একাংশ তাকে দলে নেওয়ার বিরুদ্ধাচরণ করে আসছিলেন। সোমবার পরিবর্তন যাত্রার বের হয় বাঁকুড়ায়। সেই রথে ছিলেন শ্যামাপ্রসাদ। ঠিক ওই সময়ে বিজেপির কিছু কর্মী তাঁকে লক্ষ্য করে কটূক্তি করেন বলে অভিযোগ। এরপরে বিক্ষোভের আশঙ্কা করে বিষ্ণুপুর শহরে ঢোকার আগেই রথ থেকে নেমে পড়েন বিষ্ণুপুর পুরসভার দীর্ঘ ৩৪ বছরের পুরপ্রধান তথা প্রাক্তন মন্ত্রী।

আরও পড়ুন-তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন ক্রিকেটার মনোজ তিওয়ারি?

শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় জানান, “দলের কথাতেই রথে চেপেছিলাম। ঝামেলা হতে পারে আন্দাজ করে একজন প্রবীণ নেতা হিসেবে ও দলের সম্মানের কথা ভেবে রথ থেকে নেমে পড়েছি”

Advt

গেরুয়া শিবিরের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সাধারণ সম্পাদক নিরাজ কুমার বলেন, দলে শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে কোনও ঝামেলা নেই। হরি বর্ষীয়ান নেতা। আমাদের বড় দল। কে কখন কী বলল খুঁজে দেখা মুশকিল। যদি কিছু হয়ে থাকে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব দেখবেন।