পশ্চিমবঙ্গে গণতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ সরকার গড়ার আহ্বান জানালেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

দ্বিতীয় দফার ভোটের আগে গণতান্ত্রিক ও ধর্মনিরপেক্ষ সরকার তৈরির আর্জি জানিয়ে একটি অডিও ক্লিপ প্রকাশ করলেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। এদিন অসুস্থ বুদ্ধবাবু সকলের কাছে আর্জি জানিয়ে বলেন, ” পশ্চিমবাংলাকে রক্ষা করুন। গণতান্ত্রিক, ধর্ম নিরপেক্ষ সরকার গড়ে পশ্চিমবঙ্গে নতুন ইতিহাস তৈরি করুন।”

আগামী ১ লা এপ্রিল রাজ্যে দ্বিতীয় দফার ভোট। নন্দীগ্রামে জোড়কদমে চলছে শেষ মূহূর্তের প্রচার। আর তারই মধ্যে রাজ্য-রাজনীতির সন্ধিক্ষণে সংযুক্ত মোর্চার জোটকে খানিকটা চাঙ্গা করতে সিপিআইএম নেতা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর এই অডিও ক্লিপ। মঙ্গলবার সরাসরি রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘কৃষি আমাদের ভিত্তি, শিল্প আমাদের ভবিষ্যত। বাম আমলে এই দুক্ষেত্রেই উন্নতি হয়েছিল। কিন্তু তৃণমূলের জমানায় এক ভয়াবহ পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে। যেখানে শুধুই বিপর্যয় আর হতাশা। কৃষিজাত দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি হয়েছে আর শিল্প ও শিল্পায়ন সম্পূর্ণ স্তব্ধ। এক ভয়াবহ পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে।” পাশাপাশি তিনি এও বলেন, ” নন্দীগ্রাম ও সিঙ্গুরে এখন শশ্মানের নীরবতা।শিক্ষায় নৈরাজ্য, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। যুব সমাজ, দেশের ভবিষ্যৎ আজ আশাহীন, উদ্যোহীন। দেশের ভবিষ্যৎ এভাবে চলতে পারে না। বিজেপির আগ্রাসন ও নৈরাজ্য চলছে রাজ্যে।“
মঙ্গলবার রাজ্যের যুবসমাজের উদ্দেশে তিনি বলেন, “রাজ্য ছাড়ছে অনেক যুবক। অন্য জায়গায় গিয়ে চাকরির সন্ধান করে বাঁচার চেষ্টা করছে। যুব সম্প্রদায় দেশের ভবিষ্যৎ আশাহীন উদ্যোগহীন হতাশায় জড়িয়ে পড়ছে। একদিকে এই তৃণমূলের স্বৈরতান্ত্রিক নৈরাজ্য। অপরদিকে বিজেপির আগ্রাসন। রাজ্যে যেমন বিপদের পরিবেশ তৈরি করেছে, তেমনি এনে দিয়েছে এক সম্ভাবনা। বামফ্রণ্ট, কংগ্রেস এবং ধর্মনিরপেক্ষ একটি দল তারা একটি যৌথমঞ্চ তৈরি করেছে এই নির্বাচনে সংগ্রাম করার জন্য।রাজ্যের যুবসমাজ চায় শিল্প, শিক্ষা, সমাজের উন্নত মূল্যবোধ। তাঁরা গণতন্ত্রকে রক্ষা করবে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। ”

Advt