করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে টালমাটাল অবস্থা দিল্লি-কর্নাটকের

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে এ দেশেও। যার জেরে টালমাটাল অবস্থা দেশের বিভিন্ন রাজ্যে। মহারাষ্ট্র ছা়ড়াও বেশ কয়েকটি রাজ্যে বেড়েই চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। রাজধানী দিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১৯০১।
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান বলছে, মঙ্গলবার দেশের দৈনিক সংক্রমণ সোমবারের তুলনায় অনেকটাই কম। সোমবার তা ছিল ৬৮ হাজার মতো। মঙ্গলবার তা কমে হয়েছে ৫৬ হাজার ২১১। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হলেন ১ কোটি ২০ লক্ষ ৯৫ হাজার ৮৫৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৭ লক্ষ ৮৫ হাজার ৮৬৪ জনের। আগের ৫-৬ দিন দেশে করোনা পরীক্ষা হয়েছিল প্রায় ১০-১১ লক্ষ মানুষের।
দেশের মধ্যে নতুন আক্রান্ত সবথেকে বেশি মহারাষ্ট্রে। গত ২৪ ঘণ্টায় সে রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৩১ হাজার ৬৪৩ জন। মুম্বই শহরেও রোজ আক্রান্ত হচ্ছেন ৫-৬ হাজার মানুষ। কোভিডের জেরে পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে কর্নাটকে। সেখানে রোজ নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৭৯২ জন। এর মধ্যে বেঙ্গালুরুর পরিস্থিতি সবথেকে খারাপ। গত ১৪ দিনে সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৯২১ জন। একই অবস্থা পাঞ্জাবে। সেখানেও দৈনিক সংক্রমণ বাড়তে বাড়তে ৩ হাজারের কাছে পৌঁছে গিয়েছে। তামিলনাড়ু, মধ্যপ্রদেশ, গুজরাতেও পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে গত এক সপ্তাহে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই তিন রাজ্যে নতুন সংক্রমণ হয়েছে ২ হাজারের বেশি। হরিয়ানা, রাজস্থান এবং অন্ধ্রপ্রদেশে তা প্রায় এক হাজার ছুঁইছুঁই। একই চিত্র উত্তরপ্রদেশেও।

Advt