আর্থিক দুর্নীতি মামলা: শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ রাখালের ৭ দিনের পুলিশ হেফাজত

আর্থিক দুর্নীতি মামলায় ধৃত শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ রাখাল বেরার (Rakhal Bera) পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিল শিয়ালদহ (Sealdah) আদালত। ১২ জুন পর্যন্ত অভিযুক্তকে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রাখাল বেরা যে আর্থিক দুর্নীতি মামলায় জড়িত তাতে আরও অনেকে জড়িত বলে সন্দেহ। সেই কারণে হেফাজতে নিয়ে জেরা করার প্রয়োজন রয়েছে। সেজন্যই ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজত চেয়ে আদালতে আবেদন জানান সরকারি আইনজীবী। ইতিমধ্যেই ধৃতকে দফায় দফায় জেরা করে জানা গিয়েছে, চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে বহু মানুষের থেকেই টাকা আত্মসাৎ করেছেন তিনি। নাম উঠেছে চঞ্চল নন্দী নামে এক ব্যক্তি-সহ আরও বেশ কয়েকজনের। সেচ দফতরের অবসরপ্রাপ্ত কর্মী চঞ্চল এখন পলাতক।

পুলিশ হেফাজতের আবেদনের বিরোধিতা করেন রাখালের আইনজীবী। রাখালের স্বাস্থ্যের দোহাই দিয়ে জামিনের পক্ষে সওয়াল করেন তিনি। পাশাপাশি, দু’বছর আগের ঘটনায় এতদিন বাদে কেন গ্রেফতার করা হল? সেই প্রশ্নও তোলেন। দীর্ঘ সওয়াল-জবাবের পরে ধৃত রাখাল বেরাকে ১২ জুন পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক।

রাজ্যের বিভিন্ন জেলার প্রান্ত থেকে ১০ থেকে ১২ জন প্রতারিত চাকরিপ্রার্থী নতুন করে পুলিশের কাছে অভিযোগ জমা দিয়েছেন। অভিযোগ, রাখাল বেরা ২০১৯-এ সেচ দফতরের ‘গ্রুপ-ডি’ পদে চাকরির প্রতিশ্রুতিতে দিয়েছিলেন। তার বদলে দু’লক্ষ টাকা করে নিয়েছিলেন। কিন্তু টাকা দিয়েও কেউ চাকরি পাননি বলে অভিযোগ। তাঁরা সবাই নতুন করে অভিযোগ দায়ের করছেন। পুলিশ সূত্রে খবর, শুধু মানিকতলা থানাতেই ৮-১০টি নতুন অভিযোগ জমা পড়েছে।

আরও পড়ুন- সরকার ব্যস্ত ব্লু টিকের লড়াইয়ে, প্রাণে বাঁচতে আপনারা আত্মনির্ভর হোন: ফের কটাক্ষ রাহুলের

Advt