Children’s Day:শিশুদিবস উপলক্ষে অভিনব অনুষ্ঠান আয়োজন করল অ্যাক্রোপলিস

শিশু দিবস উপলক্ষে দু’শোরও বেশি শিশুদের নিয়ে একটি কার্নিভালের আয়োজন করেছিল অ্যাক্রোপলিস। শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে, তাদের ভবিষ্যত সুরক্ষিত করতে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান আয়োজন করে তারা। পাশাপাশি ছিল ম্যাজিক শো এবং মজাদার ফ্যাশান শো। কালীঘাট এবং এর আশেপাশে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য কাজ করে এমন কয়েকটি এনজিও(NGO)-র শিশুরাও প্রতিযোগিতায় অংশ নেন । অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী সোনালী চৌধুরী।

আরও পড়ুন:Shreya Ghoshal-Devyaan:   মাতৃত্বের ছ’মাসে প্রথম ছেলের ছবি প্রকাশ্যে আনলেন শ্রেয়া ঘোষাল

শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতে এই অনবদ্য অনুষ্ঠানটির আয়োজনই শুধু নয়। পাশাপাশি ছিল পুরস্কারও। যার স্পনসর ছিল লিংক পেন। এছাড়াও ফুড পার্ট ছিল, ক্যালকাটা ডেলিকেসিস এবং ব্যাটকেভস পপকর্ন। অভিনেত্রী সোনালী চৌধুরী ছাড়াও শিশুদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন,বিঞ্জ বেফিকারের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আনিশা মোহতা এবং মারলিন গ্রুপের এমডি সাকেত মোহতার স্ত্রী আনিশা মোহতা।

শিশুদের জন্য একটি আনন্দময় বিশ্ব তৈরি করার প্রয়াসে, অ্যাক্রোপলিস, ভারতের প্রিমিয়াম মল আজ কিডসোপোলিস, একটি শিশু দিবস উদযাপনের আয়োজন করেছে। লিংক পেন একচেটিয়া উপহার স্পনসর ছিল. ক্যালকাটা ডেলিকেসিস ছিল এক্সক্লুসিভ ফুড পার্টনার এবং ব্যাটকেভস পপকর্ন ছিল পপকর্ন পার্টনার। অ্যাক্রোপলিস মলের পক্ষ থেকে স্কুল পড়ুয়াদের জন্য শিক্ষামূলক সামগ্রী প্রদান করা হয়।

এদিন অঙ্কন প্রতিযোগিতার থিম ছিল কোভিড-১৯ বা করোনা। শিশুরা তাদের সূক্ষ হাতে রং তুলি দিয়ে অতিমারি পর্ব তুলে ধরে। অভিনব পোশাক প্রতিযোগিতার বিচারকের আসনে ছিলেন দেবযানী ভট্টাচার্য, কোরিওগ্রাফার এবং ক্লাসিক্যাল নৃত্যশিল্পী।  অর্পিতা বসু, প্রাক্তন মিসেস বেঙ্গল সেকেন্ড রানার আপ, মিস এশিয়া ইউনিভার্স আইকনিক জুরি, অভিনেত্রী, মডেল এবং মোটিভেশনাল স্পিকার শিশুদের ফ্যাশান শো-এর বিচারকের গুরুদায়িত্বে ছিলেন।

শিশু দিবস উদযাপন সম্পর্কে আক্রোপলিসের জেনারেল ম্যানেজার, কে বিজয়ন বলেন, “গত দু’বছর ধরে কোভিড শিশুদের তাদের ঘরে বন্দী করে রেখেছে। এটি শিশুদেরকে বিভিন্নভাবে প্রভাবিত করেছে এবং তাদের মানসিকতাকে প্রভাবিত করেছে। তারা মোবাইল গেমের ভার্চুয়াল জগতে আরও বেশি আঠালো হয়ে উঠেছে৷ আজকের ডিজিটাল বিপ্লবের বিশ্বে৷ তাই তাদের শ্রবণ এবং পড়ার দক্ষতা, সৃজনশীল চিন্তাভাবনা এবং ভিজ্যুয়ালাইজেশনের শক্তি এবং সামাজিক দক্ষতা বিকাশ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যা চিত্রকলা এবং কিডসোপলিসের দ্বিতীয় সংস্করণে শিশু ও অভিভাবকদের ভালো অংশগ্রহণের অভিজ্ঞতা পেয়ে আমরা খুবই আনন্দিত। আমরা সম্পূর্ণ ইভেন্টে কঠোর কোভিড প্রোটোকল এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেছি।”

Previous articleAmit Shah: ‘আর কোনো হিংসাত্মক ঘটনা ঘটবে না ত্রিপুরায়’, সাংসদদের সঙ্গে বৈঠকে আশ্বাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর