অবশেষে খাঁচাবন্দি গোসাবার মথুরাখণ্ডে দাপিয়ে বেড়ানো সেই বাঘ

অবশেষে বনকর্মীদের খাঁচায় ধরা পরল গোসাবার মথুরাখণ্ড(Mathura Khand) গ্রামে ঢুকে পড়া বাঘটি(tiger)। বুধবার ভোরে বনকর্মীরা বাঘটিকে খাঁচাবন্দি করার পর স্বস্তি পেয়েছেন এলাকার সাধারণ মানুষ।

সোমবার গভীর রাতে পিরখালি(pirkhali) জঙ্গল থেকে বেরিয়ে পঞ্চমুখানি নদী সাঁতরে মথুরাখণ্ড গ্রামে ঢুকেছিল বাঘটি। সেখানে এক গ্রামবাসীর গোয়ালে ঢুকে তিনটি ছাগল এবং একটি গরুকে মেরে ফেলে সে। মঙ্গলবার ভোরে গ্রামের আশপাশে বাঘের পায়ের ছাপ এলাকাবাসীর আতঙ্ক আরও বাড়িয়েছিল। ঘটনার খবর জানতে পেরে বন দফতরের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে বাঘের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেন। গ্রাম লাগোয়া জাল দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়। এবং জঙ্গলের ভেতর পাতা হয় ২টি খাঁচা। বুধবার ভোরে তারই একটি খাঁচায় আটকা পড়ে বাঘটি।

আরও পড়ুন:স্বেচ্ছামৃত্যুর আবেদন জানিয়ে রাষ্ট্রপতিকে চিঠি মুখ্যমন্ত্রীর বাবার, ছত্তিশগড়ে চাঞ্চল্য

বনদফতরের তরফে জানা গিয়েছে, ৮ বছর বয়সী একটি পুরুষ বাঘ এটি। আপাতত শারীরিক পরীক্ষা করা হবে তার। তারপর জঙ্গলের গভীরে ছেড়ে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে সুন্দরবনের একাধিক এলাকায় একের পর এক বাধ্য করার ঘটনা রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়ে ছিল সাধারণ মানুষের মনে। যদি বনকর্মীদের চেষ্টায় সবকটি বাঘকেই জঙ্গলে পাঠানো সম্ভব হয়েছে, তবে প্রশ্ন উঠছে কেন জঙ্গল ছেড়ে লোকালয়ে ঢুকছে এত বাঘ।

Previous articleজন্মদিনে স্বামীজিকে নিয়ে মিথ্যা তথ্য ছড়ালো খোদ মোদি সরকার, দেশজুড়ে বিতর্ক