বিজেপিতে তীব্র সঙ্কট, ভেঙে দেওয়া হলো সব কমিটি

দলের বর্তমান রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যেই অনাস্থা। অবস্থা সামাল দিতে শেষ পর্যন্ত বাধ্য হয়েই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব সব কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল।

বিজেপির অন্দরে তীব্র সঙ্কট। রাজ্য কমিটি থেকে জেলা কমিটি নিয়ে একের পর এক বিদ্রোহ এবং হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ছাড়া অব্যাহত। পরিস্থিতি ক্রমশ নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। দলের বর্তমান রাজ্য নেতৃত্বের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যেই অনাস্থা। অবস্থা সামাল দিতে শেষ পর্যন্ত বাধ্য হয়েই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব সব কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল। বৃহস্পতিবার একটি ট্যুইটে রাজ্যের অফিস সেক্রেটারি প্রণয় রায় জানিয়ে দিলেন, আপাতত নতুন কমিটি না হওয়া পর্যন্ত রাজ্য বিজেপির সব কমিটি ভেঙে দেওয়া হলো।

দিলীপ ঘোষের হাত থেকে সুকান্ত মজুমদার দলের দায়িত্ব নেওয়ার পরেই পরিস্থিতি ঘোরাল হতে শুরু করে। আদি-নব্য লড়াই প্রকাশ্যে চলে আসে। শুভেন্দু অধিকারী আর সুকান্ত মুজুমদারের যৌথ পরামর্শে নতুন রাজ্য কমিটি তৈরি হয়। আর তার পরেই বিদ্রোহ শুরু হয়। একদিকে মতুয়া বিদ্রোহ, অন্যদিকে জেলা কমিটিগুলিতে প্রকাশ্য অনাস্থা এবং দল ছাড়া।কোভিড পরিস্থিতির মাঝে দলে যাতে নতুন করে আর কোনও অসন্তোষ তৈরি না হয়, সেই কারণে সব কমিটিই ভেঙে দেওয়া হলো। কিন্তু তাতে বিজেপির অন্দরে ক্ষোভ প্রশমিত হয় কিনা সেটাই দেখার। সেই সঙ্গে পরিস্কার হয়ে গেল, রাজ্য বিজেপি সভাপতি এবং বিরোধী দলনেতার উপর দলের মোটেই আস্থা নেই।

আরও পড়ুন:“শুভেন্দু নেংটি ইঁদুর, ওর কোনও দাম নেই”, বিদ্রুপ অনুব্রত মণ্ডলের

Previous articleIndia Match: তৃতীয় দিনের শেষে চাপে ভারত, প্রোটিয়াদের জয়ের জন্য প্রয়োজন ১১১ রান