নিজের ও পরিবারের আত্মরক্ষার্থে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অনুমতি পেলেন সলমন

প্রাণনাশের হুমকি পেয়েছেন। তাই নিরাপত্তার কারণে নিজের কাছে বন্দুক রাখার অনুমতি চেয়েছিলেন সলমন খান। সম্প্রতিই সেই অনুমতি দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

আরও পড়ুন:স্বস্তি দিয়ে কমল দেশের দৈনিক করোনা সংক্রমণ

সোমবার মুম্বই পুলিশ জানিয়েছে, গত মে মাসে পাঞ্জাবের গায়ক সিধু মুসেওয়ালাকে হত্যার পর সলমনের কাছেও হুমকি চিঠি আসে। তারপর এক মাস আগেই নিজের এবং পরিবারের নিরাপত্তার জন্য আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অনুমতি চেয়েছিলেন সলমন।আগ্নেয়াস্ত্রর অনুমোদন পাওয়ার জন্য বাধ্যতামূলক নথি ও সলমনের শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর অভিনেতাকে আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সলমনকে যে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে তা পুলিশকে জানিয়েছিলেন অভিনেতা নিজে এবং তাঁর পরিবার। সলমনের বাবা সেলিম খান জুন মাসে একটি হুমকি চিঠিও খুঁজে পান তাঁদের বাড়ির চত্বরে। চিঠিটি রাখা ছিল একটি বেঞ্চে, যেখানে রোজ জগিং করে এসে বিশ্রাম নেন অভিনেতা। এর পরেই গত মাসে অর্থাৎ জুলাইয়ে মুম্বইয়ের পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে দেখা করে সলমন আগ্নেয়াস্ত্র রাখার অনুমতি চান বলে খবর।

জুলাইয়ের শেষে মুম্বই পুলিশের সদর দফতরে গিয়েছিলেন সলমন। সেখানে তিনি মুম্বই পুলিশের শীর্ষ কর্তা বিবেক ফানসালকারের সঙ্গে দেখা করেন। নিজের ও পরিবারের আত্মরক্ষার্থে নিজের কাছে বন্দুক রাখার আর্জি জানিয়েছিলেন সলমন।

Previous articleফের লাল-হলুদে ভিপি সুহের : সূত্র