সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেবে না রাজ্য সরকার: স্কুলড্রেস নিয়ে জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

বিভিন্ন স্কুল ঐতিহ্য ও নিজস্বতার কারণ দেখিয়ে নিজেদের চিরাচরিত ড্রেস বদলাতে চায়নি অনেক স্কুলই। এই বিষয়ে কড়া পদক্ষেপের রাস্তায় হাঁটতে চায় না রাজ্য।

স্কুলড্রেস নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেবে না রাজ্য। জানিয়ে দিলেন শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু (Bratya Basu)। রাজ্যের সব সরকারি, সরকার পোষিত এবং সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলে (School) পড়ুয়াদের পোশাকের রং পাল্টে নীল-সাদা করার কথা ছিল। বিভিন্ন স্কুল ঐতিহ্য ও নিজস্বতার কারণ দেখিয়ে নিজেদের চিরাচরিত ড্রেস বদলাতে চায়নি অনেক স্কুলই। এই বিষয়ে কড়া পদক্ষেপের রাস্তায় হাঁটতে চায় না রাজ্য।

বিভিন্ন স্কুলের তরফে জানানো হয়েছে, প্রাথমিকে এক-দু সেট পোশাক পৌঁছলেও, পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়ারা এক সেটও স্কুলড্রেস (School Dress) পায়নি। কিছু স্কুল এক সেট করে পোশাক পেয়েছে।

যে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে পোশাক পৌঁছেছে, তাদের অধিকাংশ ক্ষেত্রে ছাত্রদের হাফপ্যান্ট পাঠানো হয়েছে। কিন্তু অনেকেই সেটা চাইছে না। পশ্চিমবঙ্গ প্রধান শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণাংশু মিশ্র জানান, অনেক পড়ুয়াই ফুলপ্যান্ট চাইছে। এই সব অভাব-অভিযোগের মধ্যেই ব্রাত্য বসু জানিয়ে দেন, পোশাক নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তই স্কুলগুলির উপর চাপিয়ে দেবে না রাজ্য।

 

Previous articleআইএসএলে ডোপ কেলেঙ্কারি, দু’বছরের জন্য নির্বাসিত বাগানের প্রাক্তন ফুটবলার আশুতোষ মেহতা