সাঁতরাগাছি ব্রিজে যান নিয়ন্ত্রণের জেরে ভোগান্তির আশঙ্কা!

রাত এগারোটা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত ব্রিজের যান চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে। ভোর পাঁচটা থেকে রাত এগারোটা পর্যন্ত ছোট গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করে চালানো হবে বলে জানা গেছে।

সাঁতরাগাছি ব্রিজ মেরামতির (Repair of Santragachi Bridge) জন্য যান নিয়ন্ত্রণ (Traffic of Control) শুরু হয়েছে। শুক্রবার রাত বারোটা থেকে এই নিয়ম কার্যকরী হয়েছে। ১৯ নভেম্বর শনিবার থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সাঁতরাগাছি ব্রিজ মেরামতি চলবে। যান নিয়ন্ত্রণের জেরে কিছুটা হলেও যানজট (Traffic Congestion) তৈরি হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। কলকাতামুখী গাড়ি নিবেদিতা সেতু (Nibedita Bridge) দিয়ে চলাচল করতে পারবে। জাতীয় সড়কমুখী গাড়ি যাবে আন্দুল রোড (Andul Road) হয়ে। বিদ্যাসাগর সেতুতে (Second Hooghly Bridge) পণ্যবাহী গাড়ি (Cargo vehicle) সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিকল্প রুট জি টি রোড, ডানকুনি, দিল্লি রোড অন্যদিকে হেস্টিংস, বাবুঘাট এবং হাওড়া ব্রিজ। রাত এগারোটা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত ব্রিজের যান চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে। ভোর পাঁচটা থেকে রাত এগারোটা পর্যন্ত ছোট গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করে চালানো হবে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার মধ্যরাত থেকে কাজ শুরু হলেও শনিবার বেলা বাড়তেই যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে এই নিয়ে হাওড়ার (Howrah) পুলিশ কমিশনারেট অফিসে সাংবাদিক বৈঠক হয়। উপস্থিত ছিলেন হাওড়া সিটি পুলিশের কমিশনার প্রবীণ কুমার ত্রিপাঠী সহ পুলিশের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা। পুলিশের তরফ থেকে স্পষ্টভাবে জানানো হয়েছে ভোর ৫টার পর থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত সেতু দিয়ে শুধুমাত্র যাত্রীবাহী গাড়ি যেমন, বাস, প্রাইভেট গাড়ি , দু’ চাকারগাড়ি , অ্যাম্বুলেন্স যাতায়াত করতে পারবে। পণ্যবাহী গাড়ি রাত দশটার পর কলকাতার দিক থেকে আসতে পারবে। সাঁতরাগাছি ব্রিজের (Santragachi Bridge) কলকাতামুখী লেনের ২১টি এক্সপ্যানসন জয়েন্ট খারাপ হয়ে গিয়েছে। সেগুলির সংস্কার করা হবে। পাশাপাশি সেতুর কাঠামোগত ত্রুটিও সরিয়ে ফেলার কাজ হবে বলে জানানো হয়েছে । সকালের দিকে যখন সাঁতরাগাছি ব্রিজ আংশিক খোলা থাকবে তখন পর্যাপ্ত ট্রাফিক পুলিশ কর্মী ও ব্রেক ডাউন ভ্যান রাখা হবে ৷ যাতে কোনও গাড়ি খারাপ হলে যাতে দ্রুত সরিয়ে ফেলা যায় ।

 

Previous articleবর্ধমান থেকে ২ অ*স্ত্রপাচারকারীকে গ্রেফতার করল বেঙ্গল এসটিএফ