শিশু অধিকার রক্ষার লড়াইকে কুর্নিশ রাজ্য সরকারের

অনুষ্ঠানের ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজকল্যাণ দপ্তর ও শিল্প বাণিজ্য দফতরের মন্ত্রী শশী পাঁজা (Sashi Panja)। রাজ্য সরকার যেভাবে শিশু শ্রম (Child Labour)আটকানোর জন্য একাধিক পদক্ষেপ করেছে, সেই বিষয়টি উল্লেখ করেন তিনি।

আন্তর্জাতিক শিশু অধিকার দিবস (International Child Rights Day) উপলক্ষ্যে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের (Government of West Bengal)তরফ থেকে ২০ নভেম্বর ২০২২, রবিবার এক বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সল্টলেকের এফ ডি ব্লকে (FD Block)আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পশ্চিমবঙ্গ শিশু অধিকার সুরক্ষা আয়োগের চেয়ারপারসন সুদেষ্ণা রায় (Sudeshna Roy)। অনুষ্ঠানের ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজকল্যাণ দফতর ও শিল্প বাণিজ্য দফতরের মন্ত্রী শশী পাঁজা (Sashi Panja)। রাজ্য সরকার যেভাবে শিশু শ্রম (Child Labour)আটকানোর জন্য একাধিক পদক্ষেপ করেছে, সেই বিষয়টি উল্লেখ করেন তিনি। রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী (Snehasish Chakraborty) এদিন জানান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী (CM) স্কুলছুট শিশুদের স্কুলে ফিরিয়ে আনতে একাধিক উদ্যোগ নিয়েছেন। এদিনের অনুষ্ঠানের ৪ টি ক্যাটাগরির জন্য পুরস্কার প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিধাননগর মিউনিসিপাল কর্পোরেশনের (Bidhannagar Municipal Corporation) মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী (Krishna Chakraborty)। উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট নাট্যকার অর্পিতা ঘোষ (Arpita Ghosh) শিশু অধিকারের জন্য প্রতি মুহূর্তে লড়াই করে চলেছেন এইরকম ৬ জন অফিসারকে এদিন শিশুবান্ধব পুলিশ পুরস্কার প্রদান করা হয়। ২৫ জন শিশুকে নিজেদের অধিকারের কথা সমাজের সামনে তুলে ধরার জন্য ‘ বীরাঙ্গনা’ এবং ‘ বীরপুরুষ’ সম্মান দেওয়া হয়। পাশাপাশি ২টি চাইল্ড হোমকেও শিশু অধিকার রক্ষায় তাঁদের অবদানের জন্য পুরস্কৃত করা হয়। বেশ কয়েকজন সাংবাদিককে শিশুশ্রী অ্যাওয়ার্ড (Shishushree Award) দেওয়া হয়। এই বছর নেপালি এবং হিন্দি ভাষীদের জন্য এই পুরস্কার চালু হল।

 

Previous articleবারবার বঙ্গভঙ্গের উস্কানি গেরুয়া শিবিরের, ফের পৃথক রাঢ়বঙ্গের দাবি বিজেপি বিধায়কের