বিজেপির ধরনা মঞ্চ থেকে বুদ্ধিজীবীদের তুলোধনা

জিয়াগঞ্জ, সন্দেশখালি নিয়ে কেন প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখছেন না? কেন মোমবাতি জ্বলছে না, বাতি কি ফুরিয়ে গেল? মেয়ো রোডে গান্ধী মূর্তির পাদদেশের ধর্ণা মঞ্চ থেকে এভাবেই বাংলার তথাকথিত বুদ্ধিজীবীদের কটাক্ষ করলেন বিজেপি নেতারা।

এদিন সায়ন্তন বসু বলেন, তৃণমূলের থেকে মাসহারা পান এই সব বুদ্ধিজীবীরা। এদের জিয়াগঞ্জ, সন্দেশখালি নিয়ে প্রতিবাদ করার ক্ষমতা নেই। প্রধানমন্ত্রীকে এখন কেন তাঁরা চিঠি দিচ্ছেন না। মোমবাতি জ্বালানোর কথা মনে নেই এঁদের। কারণ, প্রতিবাদ করলেই এসব পাঁচ টাকা-দশ টাকার বুদ্ধিজীবীদের রোজগার বন্ধ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন – পুজো কমিটির নির্বাচনেও ব্যালটে ভোট!

যুব মোর্চার নেতা দেবজিৎ সরকার বলেন, এই রাজ্যে বিশেষ ধরণের বুদ্ধিজীবীর আমদানি হয়েছে, যাঁরা শুধু বিজেপির খুঁদ ধরতে ব্যস্ত থাকে। এইসব বুদ্ধিজীবীরা পক্ষপাতদুষ্ট।

একই সুরে কথা বলেন রাহুল সিনহা, ভারতী ঘোষেরাও।

আরও পড়ুন – তারাপীঠে মা তারার আবির্ভাব দিবসে ভক্ত সমাগম