টানা তিন মাস ব্যাট স্পর্শই করেননি স্মিথ!

ব্যাটিং করাটাই যার ধ্যান–জ্ঞান সেই স্মিথ কিনা টানা তিন মাস বলতে গেলে ব্যাট স্পর্শই করেননি। অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া ক্রিকেট দল নিউ সাউথ ওয়েলসের অনুশীলনে এসে অবিশ্বাস্য এই গল্প শুনিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক। তিনি বলেছেন , ‘সত্যি বলছি, আমি ব্যাট ছুঁইনি। বাড়িতে শুধু কিছু ছোটখাট অনুশীলন করেছি। আমি একটু ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে চেয়েছি। এমনটা তো বেশি করা হয় না। আমার সব মনোযোগ ছিল নিজেকে কীভাবে শারীরিক ও মানসিকভাবে চাঙা রাখা যায় তার ওপর।’
স্মিথ ব্যাট একেবারে ছোঁননি সেটা বলা অবশ্য ভুল। অনলাইনে ভক্তদের ব্যাটিং ক্লাস নিতে গিয়ে দু–একবার ধরেছেন ব্যাট। তবে স্মিথ জানিয়েছেন, এ ছাড়া ব্যাটের দিকে হাত বাড়াননি তিনি। ‘ভক্তদের জন্য বাড়ি থেকে কিছু ক্লাস করিয়েছি । এ ছাড়া সত্যিই আমি ক্রিকেট ব্যাট ধরেনি। একটু অন্যরকম অভিজ্ঞতা তবে আমি নিশ্চিত ভবিষ্যতের জন্য ভালোই হয়েছে। বিশ্বকাপ ও অ্যাশেজ মিলিয়ে লম্বা একটা বছর কাটানোর পর সতেজ হওয়া দরকার ছিল।’
অস্ট্রেলিয়া দলের বর্তমান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার তো বলেই দিয়েছেন স্নান করতে গিয়েও ছায়া ব্যাটিং করেন স্মিথ। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং জানিয়েছিলেন, পৃথিবীর যেখানেই থাকুন না কেন ভোরে উঠেই হোটেলের রুমে বসে ব্যাট–বল নিয়ে ঠুকঠুক শুরু করে দেন স্মিথ।
কোয়ারেন্টিনের সময়ে ব্যাটিং অনুশীলন না করলেও শারীরিক পরিশ্রম ভালোই করেছেন টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে এই সময়ের এক নম্বর ব্যাটসম্যান। ৩০ বছর বয়সী স্মিথ জানালেন শারীরিকভাবে এখন চমৎকার অবস্থায় আছেন তিনি, ‘গত কয়েক বছরের মধ্যে আমি সম্ভবত এখনই শারীরিকভাবে সবচেয়ে ভালো অবস্থায় আছি। বাড়িতে প্রচুর দৌড়েছি, জিমে কাটিয়েছি অনেক সময়। মাসদুয়েকের কঠোর পরিশ্রমের ফল পেয়েছি।’
ঘরোয়া ক্রিকেটে তাঁর ক্লাব নিউ সাউথ ওয়েলসের জার্সি গায়ে নেটে তাঁর ব্যাটিং অনুশীলনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই পোস্ট করেছেন এই অজি ব্যাটসম্যান।সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে ইন্ডোর নেট সেশনের ছবি পোস্ট করে স্মিথ মজার একটি ক্যাপশন লিখেছেন অনুরাগীদের জন্য। বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট ব্যাটসম্যান লিখেছেন, ‘আনন্দ সংবাদ। তিনমাস পর নেটে ফিরলাম। মনে পড়ল কীভাবে ব্যাট ধরতে হয়।’