যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সাজছে নবান্ন, তৃতীয়বারের জন্য মসনদে মমতা

যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সেজে উঠছে নবান্ন। বুধবার তৃতীয়বারের জন্য নবান্নর মসনদে বসবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সকাল ১০টা ৪৫মিনিটে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় রাজভবনে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন মুখ্যমন্ত্রীকে। রাজভবনে শপথ গ্রহণের পরেই প্ৰশাসনিক ভবন নবান্নের যাবেন মমতা। সেই কারণেই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও প্রশাসনিক নজরদারি ও যাবতীয় তৎপরতার সঙ্গে চলছে প্রস্তুতি পর্ব। নবান্নের দেওয়ালে পড়ছে নীল-সাদা রঙের নতুন প্রলেপ।

নবান্নে ঢোকার পরই প্রথমেই নব নির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পুলিশের পক্ষ থেকে ভবন চত্বরে গার্ড অব অনার দেওয়া হবে। এরপরেই প্রশাসনিক ভবনে তৃতীয়বারের জন্য পা রাখবেন তিনি। সেই কারণেই চলছে নবান্না সাজানোর তোড়জোড়। কোথাও চলছে গার্ড অব অনারের জন্য মহড়া কোথাও আবার ফুল গাছ বসানো থেকে শুরু করে গাছ ছাঁটাইয়ের কাজ। রয়েছেন পুলিশ ও প্রশাসনের অধিকারিকরাও।

আরও পড়ুন-মমতাকে বেলাগাম আক্রমণ , কঙ্গনার টুইটার অ্যাকাউন্ট বন্ধ

আগামীকাল মমতার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতদের তালিকায় থাকছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, মনোজ টিগ্গা ৷ আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য, বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু, সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র এবং বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তীকে ৷ আমন্ত্রণ গিয়েছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী, প্রাক্তন বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানের কাছেও। বিজেপির রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপিকে আমন্ত্রণ জানালেও তারা শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবে কি না সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। তৃণমূলের তরফে ওই অনুষ্ঠানে থাকবেন দলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, তৃণমূল যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ও কলকাতা পুরনিগমের প্রাক্তন মেয়র ফিরহাদ হাকিম । এছাড়া সাংসদ হিসাবে উপস্থিত থাকবেন দেব এবং শতাব্দী।

Advt