পানীয় জলের নামে ‘বিষ পান’ করছেন দেশবাসী, চাঞ্চল্যকর রিপোর্ট কেন্দ্রের

দেশজুড়ে জলসঙ্কট(Water Crisis) নিয়ে পূর্বাভাষ আগেই দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের(Central) তরফে। এবার প্রকাশ্যে এল আরও চাঞ্চল্যকর তথ্য। সম্প্রতি রাজ্যসভায় কেন্দ্রের তরফে যে রিপোর্ট প্রকাশ্যে আনা হয়েছে তা ভয় ধরানোর জন্য যথেষ্ট। রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে অধিকাংশ দেশবাসী যে জল পান করছেন তা কার্যত বিষ(Poision)। রিপোর্টে জানানো হয়েছে, দেশের প্রায় সব রাজ্যের সব জেলাতে ভূগর্ভস্থ জলে পাওয়া গিয়েছে বিষাক্ত উপাদান।

কেন্দ্রের জলশক্তি মন্ত্রকের তরফে প্রকাশিত রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, দেশের ২৫টি রাজ্যের ২০৯টি জেলায় ভূগর্ভস্থ জলে আর্সেনিকের পরিমাণ প্রতি লিটারে ০.০১ মিলিগ্রামের চেয়েও বেশি। পাশাপাশি ২৯টি রাজ্যের ৪৯১টি জেলায় ভূগর্ভস্থ জলে লোহার পরিমাণ প্রতি লিটারে ১ মিলিগ্রামের চেয়েও বেশি। একই ভাবে ভূগর্ভস্থ জলে ক্যাডমিয়ামের পরিমাণ প্রতি লিটারে ০.০৫ মিলিগ্রামের চেয়েও বেশি ১৬টি রাজ্যের ৬২টি জেলায়। প্রতি লিটারে ০.০৩ মিলিগ্রামের চেয়েও বেশি ইউরেনিয়াম রয়েছে ১৮টি রাজ্যের ১৫২টি জেলার ভূগর্ভস্থ জলে।

রিপোর্টে জানানো হয়েছে, দেশের ৮০ শতাংশ মানুষ পানীয় জলের জন্য ভূগর্ভস্থ জলের উপর নির্ভরশীল। অথচ সেই জল বিষাক্ত হয়ে উঠেছে। শহরের চেয়ে এই সমস্যা আরও গুরুতর হয়ে উঠেছে গ্রামে। এখানকার মানুষ হ্যান্ড পাম্প, কুয়ো, নদী ও পুকুরের জলের উপর নির্ভরশীল আর জলের উৎসগুলি দূষিত হয়ে পড়েছে। সব মিলিয়ে পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। এই পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারগুলিকে বাড়ি বাড়ি পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ায় জোর দেওয়ার কথা বলেছে কেন্দ্র।


Previous articleপ্রবল বৃষ্টিতে ধস জাতীয় সড়কে, শিলিগুড়ি -সিকিম রুট সম্পূর্ণ বন্ধ